রাজ্য

বাংলায় যত স্কিম আছে, বিশ্বের কোথাও আছে।’ পশ্চিমবঙ্গে দাম কমছে না পেট্রোল-ডিজেলের, বলেই দিলেন মমতা

সোমবার মমতা বলেন,

‘তারপর চার লাখ কোটি টাকা তুলেছে শুধুমাত্র গ্যাস, পেট্রল এবং ডিজেল থেকে। আজকে ডিজেল না থাকলে জিনিসপত্রের দাম তো বাড়বেই। কৃষকরা চাষ করবেন কোথা থেকে? ডিজেল দিয়ে তো চাষ করবেন। নিজেদের রাজ্যে ক্ষমতায় আছে। আর হাজার-হাজার কোটি টাকা দিচ্ছে । আমাদের তো দেয় না। আমাদের টিকাই দেয় না। তো টাকা দেবে। বড়-বড় ফটফট করে। আমরা লিটারপিছু ডিজেলে এক টাকা ছাড় দিই। আমি কোথায় পাব? তা সত্ত্বেও করি। আমাদের যত স্কিম আছে, বিশ্বের কোথাও আছে।’

বিশ্ব বাংলা শারদসম্মান পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে মমতা দাবি করেন, রাজ্যে প্রচুর সামাজিক প্রকল্প আছে। সিলিকন ভ্যালি ২.০ তৈরি হচ্ছে। ‘প্রবলেম শুধু একটাই। এত বেশি পেট্রল, ডিজেলে, গ্যাসের দাম বাড়ছে। মানুষের টাকাপয়সা এমনভাবে রুদ্ধ করে দেওয়া হচ্ছে।’

এমনিতে গভীর ক্ষতে মলমের মতো গত সপ্তাহের বুধবার পেট্রল এবং ডিজেলের উপর উৎপাদন শুল্ক কমিয়েছে কেন্দ্র। প্রতি লিটার পেট্রলে শুল্ক কমানো হয় পাঁচ টাকা। ডিজেলের ক্ষেত্রে ১০ টাকা ছাড় দেওয়া হয়। যা দীপাবলি তথা বৃহস্পতিবার থেকে কার্যকর হচ্ছে।

Ad

কেন্দ্রের সেই ঘোষণার পরই একাধিক বিজেপি-শাসিত রাজ্যে ভ্যাট কমানো হয়েছে। যদিও পশ্চিমবঙ্গ সেই পথে হাঁটেনি। তারপরই তেড়েফুঁড়ে নেমেছে বিজেপি। এতদিন যে বিজেপি নেতারা হুঁশিয়ারি দেন যে পেট্রল এবং ডিজেলের উপর থেকে ভ্যাট না কমালে আন্দোলনে নামা হবে।

অন্যদিকে, এতদিন তৃণমূল কংগ্রেস-সহ যে বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলি কেন্দ্রকে জ্বালানি তেল নিয়ে আক্রমণ শানাত, তাদের সকলে ভ্যাট কমানোর পথে হাঁটেনি।

[ লেটেস্ট খবর এবং আপডেট জানার জন্য ফলো করুন ইউবিজি নিউজ ফেসবুক পেজ । ব্রেকিং নিউজ এবং ডেইলি খবরের আপডেটে পেতে যুক্ত হোন হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে  ]