অপেক্ষার অবসান! আগামিকালই সামনে আসছে তৃণমূলের প্রার্থী তালিকা, থাকবে রাজ্যের প্রাক্তন কিছু আমলারও নাম

ইউবিজি নিউজ ডেস্ক : অপেক্ষার অবসান। আগামিকালই সামনে আসছে তৃণমূলের প্রার্থী তালিকা। রাজ্যের শাসক দলের সেই প্রার্থী তালিকায় কোন কোন চমক থাকছে তা দেখার জন্য কার্যত এখন থেকেই প্রহর গোনা শুরু হয়ে গেল। শোনা যাচ্ছে সেই তালিকায় বেশ কিছু তারকার নাম যেমন থাকবে তেমনি থাকবে রাজ্যের প্রাক্তন কিছু আমলারও নাম। সেই সঙ্গে কলকাতা পুরনিগমের বিগত বোর্ডের কিছু কাউন্সিলরের নামও থাকতে পারে।

জানা গিয়েছে, আগামীকাল দুপুর ১২টা নাগাদ কালিঘাটে তৃণমূলসুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাড়িতেই দলের কোর কমিটির বৈঠক ডাকা হয়েছে। সেই বৈঠক শেষেই প্রার্থী তালিকা প্রকাশিত হতে পারে বলে তৃণমূল সূত্রে জানা গিয়েছে।

আর সেই তালিকায় থাকছে রীতিমত চমক। সেখানে যেমন একঝাঁক তারকার নাম থাকছে তেমনি থাকছে রাজ্যের কিছু প্রাক্তন আমলার নামও।

সূত্রে জানা গিয়েছে সেই প্রাক্তন আমলাদের মধ্যে থাকছেন রাজীব সিনহা যিনি রাজ্যের মুখ্যসচিব হিসাবে কাজ করে গিয়েছেন। থাকছেন প্রাক্তন পুলিশ আধিকারিক কুমায়ুন কবীর। থাকছেন অভিনেত্রী সায়নী ঘোষও। সেই তালিকায় থাকছে কলকাতা পুরনিগমের কাউন্সিলর অনন্যা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নামও। তবে রাজনীতির জগতে সেভাবে পরিচিত নন এমন কিছু নামও এবারে তৃণমূলের প্রার্থী তালিকায় থাকবে বলেই জানা গিয়েছে।

সেই সঙ্গে এক ঝাঁক নতুন মুখও তুলে আনা হতে পারে বলে জানা গিয়েছে। সেই তালিকায় থাকতে পারে দেবাংশু ভট্টাচার্যের নামও। নাম থাকতে পারে তৃণমূল ছাত্র পরিষদের নেতা সুদীপ রাহার নামও। নাম থাকতে বারে পরিচালক রাজ চক্রবর্তী, অভিনেত্রী কৌশানী মুখার্জী, অভিনেত্রী জুন মালিয়া, অভিনেতা দীপঙ্কর দে, ক্রিকেটার মনোজ তেওয়ারির নামও।

তবে বেশ কিছু বিধায়ক ও মন্ত্রীর নাম এবারের তালিকা থেকে বাদ পড়তে পারে বলেই মনে করা হচ্ছে। একই সঙ্গে বিজেপিতে চলে গিয়েছেন এমন কয়েকজনের নামও প্রার্থী তালিকায় চমক হিসাবে থাকতে পারে। তবে তৃণমূল সূত্রে জানা গিয়েছে, সব আসনের প্রার্থীদের নাম কালকেই ঘোষণা করা নাও হতে পারে। গোটা ১০-১২ আসন ফাঁকা রাখা হতে পারে। পরে সেই সব আসনের প্রার্থীতালিকা ঘোষণা করে দেওয়া হবে।

একই সঙ্গে এটাও জানা গিয়েছে, এবারের প্রার্থী তালিকায় অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় ও পিকের মতামতকে বিশেষ ভাবে গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। সেই কারনেই তুলনায় নবীন প্রার্থীর সংখ্যা এবারে বেশিই থাকবে। সেই সঙ্গে কিছু বয়স্ক বিধায়ক ও মন্ত্রীর নামও বাদ পড়তে পারে তালিকা থেকে। আর হ্যাঁ সবথেকে বড় চমক হতে পারেন দিদির কেষ্ট। তাঁর নামও থাকতে পারে তালিকায়।