বাংলায় বিধানসভা ভোটের দুই পুলিশ আধিকারিককে বিশেষ পর্যবেক্ষক হিসেবে নিয়োগ করল নির্বাচন কমিশন

ইউবিজি নিউজ ব্যুরো : আসন্ন বিধানসভা ভোট অবাধ ও নির্বিঘ্নে করার জন্য নজিরবিহীনভাবে প্রাক্তন দুই পুলিশ আধিকারিককে বিশেষ পুলিশ পর্যবেক্ষক হিসেবে নিয়োগ করল নির্বাচন কমিশন। যে দুই প্রাক্তন পুলিশ আধিকারিককে বিশেষ পুলিশ পর্যবেক্ষক হিসেবে নিয়োগ করা হয়েছে, তাঁরা হলেন বিবেক দুবে ও মৃণাল কুমার দাস। এদের মধ্যে বিবেক দুবে ২০১৯ সালের লোকসভা ভোটের সময়ে রাজ্যে পুলিশ পর্যবেক্ষকের দায়িত্ব পালন করেছিলেন।

শুক্রবার দিল্লির বিজ্ঞান ভবনে সাংবাদিক সম্মেলনে পশ্চিমবঙ্গের ভোটের নির্ঘন্ট ঘোষণা করতে গিয়ে নজিরবিহীনভাবেই রাজ্যে দুই পুলিশ পর্যবেক্ষক নিয়োগের কথা ঘোষণা করেন মুখ্য নির্বাচন কমিশনার সুনীড অরোরা।

দুই পর্যবেক্ষকের মধ্যে বিবেক দুবে ২০১৯ সালে লোকসভা ভোটের সময়ে রাজ্যে পুলিশ পর্যবেক্ষকের দায়িত্ব নিয়ে এসেছিলেন। ১৯৮১ সালের অন্ধ্রপ্রদেশ ক্যাডারের আইপিএস বিবেক দুবে রাজ্য পুলিশের পাশাপাশি কেন্দ্রীয় সরকারের বিভিন্ন পদেরও দায়িত্ব সামলেছিলেন। পুলিশ মহলে তিনি গেরুয়া বান্ধব হিসেবেই পরিচিত। ২০১৯ সালে লোকসভা ভোটের সময়ে তাঁর বেশ কিছু সিদ্ধান্ত নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসের শীর্ষ নেতারা।

তবে বিবেকের সঙ্গে দ্বিতীয় যিনি পুলিশ পর্যবেক্ষক হিসেবে দায়িত্ব পেয়েছেন সেই মৃণাল কুমার দাস ১৯৭৭ ক্যাডারের আইপিএস। তিনি মণিপুরের ডিজি হিসেবে অবসর নিয়েছিলেন। ২০১৯ সালের লোকসভা ভোটের সময়ে ত্রিপুরা ও মিজোরামের বিশেষ পুলিশ পর্যবেক্ষকের দায়িত্ব সামলেছিলেন। পরে ২০১৯ সালের নভেম্বর মাসে ঝাড়খণ্ড বিধানসভার ভোটের সময়ে বিশেষ পুলিশ পর্যবেক্ষকের দায়িত্ব সামলেছিলেন। কর্মজীবনে দক্ষ ও কঠোর পুলিশ আধিকারিক হিসেবেই পরিচিত ছিলেন মৃণালবাবু।

নির্বাচন কমিশন সূত্রে খবর, দুই পুলিশ পর্যবেক্ষককে অবিলম্বে রাজ্যে পৌঁছে যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্য নির্বাচন কমিশনার। দু’জনে নিজেদের মধ্যে সমন্বয় রেখেই পর্যবেক্ষকের দায়িত্ব সামলাবেন। প্রয়োজনে আলাদা-আলাদা বিধানসভা কেন্দ্রের দায়িত্বে থাকবেন। ভোটের আগে হাতে যে সময় রয়েছে, সেই সময়ের মধ্যেই জেলা সফরে যাওয়ার চেষ্টা করবেন।