‘গুলির বদলা নিতে হবে ভোট দিয়ে’, শীতলকুচির ঘটনার প্রসঙ্গে সুর চড়ালেন মমতা

ইউবিজি নিউজ ডেস্ক : আজ উত্তর ২৪ পরগনার হিঙ্গলগঞ্জের সভায় ফের সুর চড়ালেন তৃনমূল সুপ্রীমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন তিনি চতুর্থ দফা নির্বাচনের সকালে ঘটে যাওয়া শীতলকুচির ঘটনার প্রসঙ্গে বেশ কিছু বক্তব্য রাখলেন।

এদিন তিনি বলেন, ‘গুলির বদলা নিতে হবে ভোট দিয়ে। একটা মারাত্মক ঘটনা ঘটেছে। আর সেই ব্যথ্যা নিয়েই আমি এখানে এসেছি। যা আমাকে মর্মাহত করেছে। সিআরপিএফ গুলি চালিয়ে আজকে চারজন মানুষকে মেরে দিয়েছে।’

এর পাশাপাশি তিনি বিপক্ষ দলকে আক্রমণ করে বলেন, ‘আমি প্রথম দিন থেকে বলে আসছি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর চক্রান্তে কাজ করছে সিআরপিএফ। আর আজকে প্রমাণ হয়ে গিয়েছে শীতলকুচির ঘটনায়। সিআরপিএফ আমার শত্রু নয়। সিআরপিএফকে বিজেপির হয়ে কাজ করতে হচ্ছে। বিজেপি জেনে গিয়েছে ওরা হারবে। তাই নানারকম অশান্তি ছড়াচ্ছে। আমাদের কর্মীদের গুলি করে মারছে। সাধারণ মানুষকে মারছে। কী অন্যায় করেছিল ওই চারজন? কেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাধারণ মানুষের উপর অত্যাচার নামিয়ে আনার নির্দেশ দিচ্ছেন?’

তবে অপরদিকে শীতলকুচির ঘটনার প্রসঙ্গে নির্বাচন কমিশন তরফে জানান হয়েছে, ‘বাধ্য হয়ে গুলি চালিয়েছে বাহিনী।’ তবে নির্বাচন কমিশনের এই কথার প্রসঙ্গে প্রশ্ন তুলে তিনি বলেন, ‘এত মানুষ মেরে বলছে আত্মরক্ষা। আমি বলব, কেউ অশান্তি ছড়াবেন না। ভোট দিয়ে বদলা নিন। তবেই মৃতদের আত্মা শান্তি পাবে।’