মাধ্যমিকের উত্তরপত্রে নম্বর কাটলেই দিতে হবে কৈফিয়ত্‍, নয়া নির্দেশিকা জারি পর্ষদের

UBG NEWS, রাজ্য : নম্বর কাটলেই দিতে হবে কৈফিয়ত্‍; নয়া নির্দেশিকা পর্ষদের। হাজার চেষ্টা করেও আটকানো যায়নি মাধ্যমিকে প্রশ্ন পত্র ফাঁস। যে কারণে পার্থর শিক্ষা দফতরকে প্রশ্নের মুখে পড়তে হয়েছে।

তাই রেজাল্ট বেরোনোর সময় যেন নতুন কোনও সমস্যা না দেখা দেয় তাই আগেভাগেই সেই ব্যবস্থা নিল পর্ষদ। সদ্যই শেষ হয়েছে মাধ্যমিক পরীক্ষা। রেজাল্ট বেরোতে এখনও বাকি। তার আগে পরীক্ষকদের জন্য নয়া নির্দেশিকা জারি করল; মধ্যশিক্ষা পর্ষদ।

চলতি বছরের মাধ্যমিক শুরু হয়েছিল ১৮ ফেব্রুয়ারি। শেষ হয়েছে ২৬ ফেব্রুয়ারি। পরীক্ষা চলাকালীন একাধিক পদক্ষেপ নেওয়া সত্ত্বেও প্রশ্নফাঁস রুখতে পারেনি পর্ষদ। পূর্বের ধারা বজায় রেখে এবারও বেশ কয়েকটি পরীক্ষা শুরুর কিছুক্ষণের মধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে প্রশ্নপত্রের ছবি। এর জেরে অস্বস্তিতে পড়তে হয় পর্ষদকে। ফলপ্রকাশের পর যাতে নতুন করে কোনও সমস্যা না দেখা দেয় সেই কারণে আগেভাগেই ব্যবস্থা নিল পর্ষদ।

কেন নম্বর কাটছেন তার কারণও ব্যাখ্যা করতে হবে উত্তর পত্রে; মধ্যশিক্ষা পর্ষদের নতুন নির্দেশিকায় এমন নির্দেশই দেওয়া হয়েছে।

পর্ষদ সভাপতি কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায় জানিয়েছেন, কেন নম্বর কাটা হচ্ছে সেই কারণ উল্লেখ করে দিতে হবে উত্তরপত্রে। অর্থাত্‍ কোনও ৫ নম্বরের প্রশ্নের উত্তরে যদি শিক্ষক ৩ দেন, সেক্ষেত্রে কেন ২ নম্বর কাটা হল তা লিখে দিতে হবে পরীক্ষককে। আর নতুন এই নিয়ম লাগু হবে চলতি বছরেই। এই পদ্ধতি লাগু হলে খাতা দেখার ক্ষেত্রে ভুলভ্রান্তির সম্ভাবনা কমবে। উত্তরপত্র মূল্যায়ণের ক্ষেত্রে পরীক্ষকরা আরও বেশি করে মনোনিবেশ করবেন বলেই মনে করা হচ্ছে পর্ষদের তরফে।