Ad
রাজ্য

ভোটের মুখে নতুন জেলা কমিটি ঘোষণা , নতুন জেলা কমিটি থেকে বাদ জিতেন্দ্র তিওয়ারি

এই বিজ্ঞাপনের পরে আরও খবর রয়েছে

কলকাতা, ১৭ জানুয়ারীঃ ভোটের মুখে তৃণমূলের নতুন জেলা কমিটি ঘোষণা৷ মালদা ও পশ্চিম বর্ধমান জেলায় নতুন কমিটি৷ এছাড়া মালদহ জেলার নতুন কোর কমিটি গঠন করা হয়েছে৷ তাছাড়া রাজ্য কমিটির সহ-সভাপতি হচ্ছেন শতাব্দী রায়৷ পশ্চিম বর্ধমানে শাসক দলের নতুন জেলা কমিটি থেকে বাদ পড়েছেন জিতেন্দ্র তিওয়ারি৷

তবে জিতেন্দ্র সংবাদ মাধ্যমকে বলেছেন,‘আমি তো নিজেই ইস্তফা দিয়েছি। বাদ দেওয়া হবে কেন? আমি দলের সঙ্গেই আছি৷ ’ জিতেন্দ্র তিওয়ারির জায়গায় পশ্চিম বর্ধমানের জেলা সভাপতির পদে এলেন অপূর্ব মুখোপাধ্যায়। চেয়ারম্যান শ্রমমন্ত্রী মলয় ঘটক। আগেও তিনি একই পদে ছিলেন৷

Ad

এছাড়া ওই কমিটিতে নতুন মুখ কুলটির বিধায়ক উজ্জ্বল চট্টোপাধ্যায়। তাঁকে বারাবনি ও কুলটি বিধানসভা এলাকায় কো অর্ডিনেটর হিসাবে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে৷ এ ছাড়া দুর্গাপুর পূর্ব ও পশ্চিমের কো অর্ডিনেটরের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে বিধায়ক বিশ্বনাথ পারিয়ালকে।হরেরাম সিংহ রানিগঞ্জ এবং জামুরিয়ার কো অর্ডিনেটর। আসানসোল উত্তর এবং দক্ষিণ বিধানসভার কো অর্ডিনেটর ভি শিবদাসন। জেলার প্রবক্তা পদে রয়েছেন অশোক রুদ্র এবং আসানসোল দক্ষিণের বিধায়ক তাপস বন্দ্যোপাধ্যায়৷

অন্যদিকে মালদা জেলা কমিটিতে জেলা চেয়ারম্যান কে এন চৌধুরী,জেলা সভাপতি মৌসম নূর৷ সূত্রের খবর, তৃণমূলের রাজ্য কমিটির সহ সভাপতি হচ্ছেন শতাব্দী রায়। সহ সভাপতি হচ্ছেন মোয়াজ্জেম হোসেন ও শঙ্কর চক্রবর্তী।এদিন শতাব্দী রায় সংবাদ মাধ্যমকে তাঁর প্রতিক্রিয়ায় বলেন, “দায়িত্ব পাওয়ায় আমি খুব খুশি। আমি মনে করি, আমার দায়িত্ব আরও বেড়ে গেল। আমি বরাবরই কাজ করে এসেছি। আগামীদিনে আরও ভালভাবে কাজ করতে চাই। আমাকে এই দায়িত্ব দেওয়ায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও অভিষেকের কাছে আমি কৃতজ্ঞ। দলে কী কী সুবিধা-অসুবিধা হচ্ছে, তা জানালে দল তা শোনে, এটাই তার প্রমাণ। হয়ত আগে সঠিক জায়গায় যেতে পারিনি বলেই সমস্যার সমাধান হয়নি।”

আরও পড়ুন