ফের উত্তপ্ত মুর্শিদাবাদ, খুন তৃণমূল কর্মী!

মুর্শিদাবাদ, ২১ এপ্রিলঃ ফের উত্তপ্ত হয়ে উঠল মুর্শিদাবাদ। রাজনৈতিক হিংসার বলি হলেন আরও এক তৃণমূল কর্মী। জায়গা দখল নিয়ে বিবাদের জেরে ওই তৃণমূল কর্মীর গলা কেটে খুন করেছে বিজেপি ও কংগ্রেস আশ্রিত দুষ্কৃতীরা এমনটাই অভিযোগ।

অষ্টম দফায় মুর্শিদাবাদের হরিহরপাড়ায় ভোটগ্রহণ। তার আগে সোমবার রাতে রাজনৈতিক সংঘর্ষে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে ওই এলাকা। হরিহরপাড়া বিধানসভার অন্তর্গত বিলধারীপাড়ার ঘোষালপুর এলাকায় তৃণমূল ও কংগ্রেস কর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। চলে বোমাবাজি। এমনকী গুলি ছোঁড়ার অভিযোগও ওঠে। সংঘর্ষের জেরে এক কংগ্রেস কর্মীর মৃত্যু হয়। ঘটনায় আহত হয় দু’পক্ষের অন্তত ১০ জন। এই নিয়ে এলাকায় উত্তেজনা ছিলই।

এরপর মঙ্গলবার রাতে ফের বোমাবাজি শুরু হয় হরিহরপাড়া এলাকায়। দীর্ঘক্ষণ পর পরিস্থিতি কিছুটা শান্ত হতেই স্থানীয়রা বেরিয়ে দেখেন রাস্তায় পড়ে রয়েছে বাদল ঘোষ নামে এলাকারই এক যুবকের রক্তাক্ত দেহ। বাদল তৃণমূল কর্মী হিসেবে এলাকায় পরিচিত। বাদলের ঘাড়ে গভীর ক্ষত ছিল। বোমায় ঝলসে গিয়েছিল শরীরের একাধিক অংশ। সঙ্গে সঙ্গে খবর দেওয়া হয় থানায়। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে দেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠিয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, এলাকার একটি জায়গায় দখলকে কেন্দ্র করে বিজেপি, কংগ্রেস ও তৃণমূলের মধ্যে অশান্তি চলছিল দীর্ঘদিন ধরে। সেই ঘটনাকে কেন্দ্র করেই মঙ্গলবার নতুন করে উত্তেজনা ছড়ায়। তৃণমূলের অভিযোগ, বিজেপি ও কংগ্রস আশ্রিত দুষ্কৃতীরাই খুন করেছে বাদলকে। যদিয়ও অভিযোগ অস্বীকার করেছে বিজেপি ও কংগ্রেস।