করোনা আবহে একসঙ্গে হোক শেষ দু’দফার ভোট, নির্বাচন কমিশনে তৃণমূল

কলকাতা, ২০ এপ্রিলঃ ফের একসঙ্গে দু’দফার ভোটের দাবি জানাল তৃণমূল। মঙ্গলবার কলকাতায় নির্বাচন কমিশনের দফতরে যায় তৃণমূলের প্রতিনিধি দল। করোনা পরিস্থিতিতে রাজ্যে সপ্তম ও অষ্টম দফার নির্বাচন একসঙ্গে করার দাবি জানায় রাজ্যের শাসকদল।

এব্যাপারে নির্বাচন কমিশনারকে লিখিত দাবিপত্র দিয়েছে তৃণমূল। দলের রাজ্যসভার সাংসদ ডেরেক ও’ব্রায়েনের নেতৃত্বে এদিন নির্বাচন কমিশনের দফতরে গিয়েছিলেন তৃণমূলের প্রতিনিধিরা। প্রতিনিধি দলে ছিলেন দোলা সেন, প্রতিমা মণ্ডলরা।

চতুর্থ দফার ভোটের পরই বর্তমান করোনা পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে বাকি চার দফার ভোট একসঙ্গে করার আরজি জানিয়েছিলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

তাঁর কথায়, বাকি চার দফার ভোট একসঙ্গে হয়ে গেলে আর প্রচারের কোনও ব্যাপার থাকবে না। ফলে সাধারণ মানুষের জমায়েত এড়ানো যাবে।

কিন্তু কমিশনের তরফে সাফ জানিয়ে দেওয়া হয়েছিল, পূর্ব নির্ধারিত সূচি অনুযায়ী বাকি ভোট আরও চার দফাতেই হবে। কিন্তু সংক্রমণের চোখ রাঙানির মধ্যে ফের একই আরজি শোনা গেল তৃণমূলের তরফে।

২২ এপ্রিল অর্থাৎ বৃহস্পতিবার বাংলায় ষষ্ঠ দফার ভোট। ফলে এই দফায় আর কোনও বদল আনা সম্ভব নয়। কিন্তু এবার তৃণমূলের তরফে চিঠি দিয়ে আবেদন করা হল, ২৬ এবং ২৯ এপ্রিলের ভোট প্রক্রিয়া একসঙ্গে করা হোক। তৃণমূলের এই দাবিতে কমিশনের প্রতিক্রিয়া কী হয়, এখন তারই অপেক্ষা।