Ad
রাজ্য

লক্ষীর ভান্ডারের আবেদন করেছেন কিন্তু এখনও মেসেজ আসেনি, জানুন কি করবেন এখন

এই বিজ্ঞাপনের পরে আরও খবর রয়েছে

ইউবিজি নিউজ : এতদিন ধরে কিভাবে লক্ষী ভান্ডার প্রকল্প আবেদন করবেন কি কি ডকুমেন্টস লাগবে এই ধরনের যাবতীয় সমস্যা দেখা যাচ্ছিল । কিন্তু এবার একটি নতুন সমস্যার উদয় হলো । আবেদন করার পর অনেকের মোবাইলে এসএমএস বা মেসেজ আসেনি ।

যার ফলে তারা পুনরায় দ্বিতীয়বারের জন্য আবেদন করছে এবং একই পরিবার থেকে দু বার বা তার বেশি আবেদন করার জন্য ব্যাপক পরিমাণে অসুবিধা হচ্ছে সরকারি আধিকারিকদের ।

Ad

তাই যাদের মোবাইলে লক্ষী ভান্ডার প্রকল্পের মেসেজ আসে নি তারা কি করবে তা নিয়ে আজকের এই প্রতিবেদন।

পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের তরফ থেকে যে লক্ষী ভান্ডার প্রকল্প চালু করা আছে তার টাকা আগামী পয়লা সেপ্টেম্বর থেকে আপনাদের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে প্রবেশ করবে । কিন্তু যদি আপনি আবেদনপত্রে কোনো রকম কোনো ভুল করে থাকেন তাহলে কিন্তু সে আবেদনপত্র গ্রহণযোগ্য হবে না ।

সরকারি আধিকারিকরা বেশ খুঁটিয়ে সেই সমস্ত নথিপত্রগুলো দেখছে যেগুলি আপনারা সেই লক্ষী ভান্ডার প্রকল্পের আবেদন পত্রের সাথে সংযুক্ত করেছেন ।যদি সেখানে কোনো রকম কোনো যোগ থাকে তাহলে সে আবেদনপত্রটি সম্পূর্ণ রকমভাবে বাতিল করে দেওয়া হচ্ছে । সে ক্ষেত্রে কিন্তু আপনার মোবাইলে এসএমএস আসবে না ।

দ্বিতীয়ত যে কারণের জন্য হতে পারে সেটি হলো মেসেজ বক্স ফুল অর্থাৎ অনেক ক্ষেত্রে দেখা যায় যে অতিরিক্ত পরিমাণে মেসেজ আসার জন্য নতুন করে কোন মেসেজ বা এসএমএস আপনার ফোনে প্রবেশ করতে পারছে না। তাই যে সমস্ত এস এম এস গুলি আপনার দরকার নাই সেগুলো কি অবিলম্বে তাড়াতাড়ি ডিলিট করুন ।তাহলে হয়তো নতুন মেসেজ আসতে পারে।

তৃতীয়ত যে বিষয়টি লক্ষ্য করা যাচ্ছে যে অনেকের হয়তো মোবাইলের রিচার্জ নেই অর্থাৎ ইনকামিং ও আউটগোয়িং কোন পরিষেবা নেই অথচ সেই মোবাইল নাম্বারটা তারা লক্ষী ভান্ডার প্রকল্পে নথিভূক্ত করেছে । যার ফলে মোবাইলে ঢুকছে না ম্যাসেজ ।

তার পাশাপাশি এমনটাও হতে পারে যে হয়ত সরকারি আধিকারিক রা এসএমএস পাঠিয়ে দিয়েছে কিন্তু সার্ভার প্রবলেম এর জন্য আপনার মোবাইলে এখনও পর্যন্ত সেই মেসেজ আসে নি তাহলে ঘাবড়াবার কোন দরকার নেই । কথা অনুযায়ী পয়লা সেপ্টেম্বর থেকে আপনার একাউন্টে টাকা ঢুকে যাবে । যদি আপনি সমস্ত কিছু সঠিক রকম ভাবে আবেদন করে থাকেন তো ।

আরও পড়ুন