গত নির্বাচনে তৃণমূলের মূল স্লোগান ছিল ‘খেলা হবে’, এবার জাতীয় স্তরে এই স্লোগান বেঁধে দিলেন মমতা

ইউবিজি নিউজ ডেস্ক : গত বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূলের মূল স্লোগান ছিল ‘খেলা হবে’। আর এই ‘খেলা হবে’ স্লোগান নিয়ে তৃণমূলকে কটাক্ষ করেছিল বিজেপি ও বাম-কংগ্রেস জোটের নেতারা। তবে এই খেলা হবে স্লোগান দিয়েই তৃণমূল ২০২১-এর বিধানসভা নির্বাচনে বিপুল আসন নিয়ে জয়ী হয়েছে। এবার জাতীয় স্তরেও সেই খেলা হবে স্লোগানকে সম্বল করে আগামী ২০২৪-এর লোকসভা নির্বাচনে লড়তে চাইছে তৃণমূল।

আর সেই লক্ষ্যেই বুধবার ২১ জুলাই-এর শহিদ দিবসের ভার্চুয়াল সভা মঞ্চ থেকে তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আগামী ১৬ অগস্ট ‘খেলা হবে’ দিবস পালনের ডাক দিলেন। ১৫ অগস্ট স্বাধীনতা দিবস, ঠিক তার পরের দিনকেই ‘খেলা দিবস’ হিসেবে বেঁচে নিয়েছেন তৃণমূল সুপ্রিমো। এদিন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁর বক্তব্যের মধ্য দিয়ে আগামী ২০২৪-এর লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি বিরোধিতার সুর বেঁধে দিলেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বললেন, ‘একটা খেলা হয়েছে তার ফল মানুষ দেখেছেন।আবার খেলা হবে।’

আমরা দেখেছি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি পশ্চিমবঙ্গে প্রচারে এসে এই খেলা হবে স্লোগান নিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে তির্যক ভাষায় আক্রমণ করেছেন। প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, নির্বাচন হচ্ছে একটা গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া।আর দিদি (পড়ুন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়) এই নির্বাচনের প্রচারে এসে বলছেন খেলা হবে! এটাই দিদির গণতন্ত্র।

তবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ২০২১-এর বিধানসভা নির্বাচনের প্রচারে এসে বারবার খজেলা হবে স্লোগান দিয়েছেন। অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় নির্বাচনী প্রচারে যেখানে রোড শো করেছেন সেখানেই খেলা হবে গানটি বেজেছে। বিরোধীরা ‘খেলা হবে’-র বিরোধিতা করার পর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ‘খেলা হবে’ স্লোগানে আরও জোর দিয়েছেন।এবার আরও এক ধাপ এগিয়ে ‘খেলা হবে’-কে জাতীয় স্তরে বিজেপি বিরোধিতার প্রচারের হাতিয়ার করতে চলেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়