বিজেপি ক্ষমতায় এলে বাংলায় মুখ্যমন্ত্রীর পদে কে বসবে? প্রসঙ্গের অবতারণা দিলীপ ঘোষের

ইউবিজি নিউজ ডেস্ক : বিজেপি (bjp) ক্ষমতায় আসতে চলেছে। বাংলার কোনো ভূমিপুত্র রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী হবেন। একথা বারবার বলছেন বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্ব। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ রাজ্য সফরে এসে এমন কথাই বলেছেন। বিজেপির সর্বস্তরের নেতারা বারবার বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে সামনে রেখেই বিজেপি নির্বাচনে লড়বে বাংলায়। কিন্তু তবু বাংলার মুখ্যমন্ত্রী কে হতে পারেন যদি বিজেপি ক্ষমতায় আসে, সেই বিষয়টি নিয়ে জল্পনা অব্যাহত। এই পরিস্থিতিতে সোমবার রাসবিহারীর সভায় বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ এই প্রসঙ্গের অবতারণা করলেন।

তিনি বলেন,” বিজেপি ক্ষমতায় আসতে চলেছে। মুখ্যমন্ত্রী কে হবেন সেটা নিয়ে প্রচুর কথা চলছে। মুখ্যমন্ত্রী পদে কে বসতে চলেছেন সেটা নবান্নের চেয়ারে দেখে নেবেন। আগে সমস্ত টিভি চ্যানেলে শুনতাম রাজ্যে বিজেপির কোনো অস্তিত্ব নেই। পরে চর্চা শুরু হল কলকাতায় বিজেপি বলতে কিছু নেই। আজকের মিছিল দেখে কি মনে হচ্ছে? দক্ষিণ কলকাতায় যে বিশাল মিছিল হল সেটা থেকে কি বুঝতে পারছেন? বিজেপি আছে না নেই? এটা শুধু ডেমো দেখালাম। পুরো ফিল্ম পরে দেখবেন। তাই বলছি কে বিজেপির মুখ্যমন্ত্রীর মুখ হবেন, সেটা একুশের নির্বাচনের ফলাফলের পর ঠিক করব। সেই ব্যক্তি নবান্নের চেয়ারে বসবেন। দেখে নেবেন কে মুখ্যমন্ত্রী হচ্ছেন”‌। বাংলার মুখ্যমন্ত্রী কে হবেন সে বিষয়ে এভাবেই বার্তা দিয়েছেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি।

উল্লেখ্য কিছুদিন আগেই বিজেপি যুব মোর্চার রাজ্য সভাপতি সৌমিত্র খাঁ বলেছিলেন, দিলীপ ঘোষকে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে তিনি দেখতে চাইছেন ‌। সৌমিত্রর সেই বক্তব্যে বিতর্ক তৈরি হয় দলের অন্দরে। বিষয়টি নিয়ে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব। এরপরই আজ দিলীপ ঘোষ বিষয়টি নিয়ে এমন কথাই বললেন জনসভা থেকে। বুঝিয়ে দিলেন নির্বাচনের পর ঠিক হবে মুখ্যমন্ত্রী কে হবেন ‌।

এদিন দিলীপবাবু তৃণমূলের নেতাকর্মীদের হুঁশিয়ারি দিয়েছেন। উল্লেখ্য এদিন মিছিলে তৃণমূল আক্রমণ চালিয়েছে বলে অভিযোগ। সেই প্রসঙ্গে বিজেপি রাজ্য সভাপতি বলেন,” ওদের দুটো হাত থাকলে আমাদের কর্মীদেরও দুটো হাত আছে। জেনে রাখুন দিলীপ ঘোষের শুধু মুখ চলে না, হাতও চলে। কিন্তু আমরা শান্তিপূর্ণ আন্দোলনে বিশ্বাসী।

গণতন্ত্র মেনে চলি। তৃণমূল গুন্ডাদের চারটে হাত আছে নাকি? বেশি বাড়াবাড়ি করলে শারীরিক, ভৌগোলিক অবস্থা বদলে দেবো।” নির্বাচনের আগে তৃণমূল ছেড়ে সর্বস্তরের নেতাকর্মীরা বিজেপিতে আসতে চাইছেন বলে এদিন দাবি করেছেন দিলীপবাবু। তিনি বলেন, এত অনুরোধ আসছে তাঁদের যোগদান করানোর জন্য সময় পাচ্ছি না। বিধায়ক, কাউন্সিলর, পঞ্চায়েত প্রধান, জেলা কমিটির নেতা এরকম প্রচুর তালিকা রয়েছে।

আগামীদিনে তৃণমূলের জন্য কোনো আসন নিরাপদ নয়। তাই তৃণমূল নেতাদের বলছি, আপনারা বিধানসভা কেন্দ্র বেছে রাখুন। যে আসনে বলবেন, যত মার্জিনে বলবেন হারিয়ে দেবো। ঘাসফুল আর ফুটবে না ‌ তৃণমূলের ঝান্ডা ধরার লোক পাওয়া যাবে না ফেব্রুয়ারি মাসের পরে। এভাবেই এদিন তৃণমূলকে তোপ দেগেছেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।