Ad
রাজ্য

হাতির হানায় প্রাণ হারালে পরিবারের একজনকে চাকরি, বড় ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

এই বিজ্ঞাপনের পরে আরও খবর রয়েছে

ইউবিজি নিউজ ব্যুরো : উত্তরবঙ্গ সফর শেষ করেই দু’দিনের সফরে জঙ্গলমহলে গেলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মঙ্গলবার দুপুরে হেলিকপ্টারে খড়গপুর পৌঁছন মুখ্যমন্ত্রী। সেখানে প্রশাসনিক বৈঠক করেন তিনি। মঙ্গলবার খড়গপুরে প্রশাসনিক বৈঠকের পর রাজ্য পর্যটন দফতরের গেস্ট হাউসে রাত কাটাবেন তিনি। সেখান থেকেই বুধবার যাবেন ঝাড়গ্রামে। সেখানেও প্রশাসনিক বৈঠক করবেন মুখ্যমন্ত্রী।

জানা গিয়েছে, উত্তরবঙ্গের মতো এ বারও সমস্ত বিভাগের কর্তাদের বৈঠকে আসতে নিষেধ করা হয়েছে। সামান্য কয়েকজন অফিসার থাকবেন বৈঠকে। অন্যান্যদের ভিডিয়োর মাধ্যমে উপস্থিত থাকতে হবে। কৃষি, পঞ্চায়েত, সেচ, ভূমি, স্বরাষ্ট্র এবং মুখ্যসচিব প্রশাসনিক বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে থাকবেন। এদিন এই বৈঠকের মঞ্চ থেকে বেশ হাতির হানায় মৃতদের পরিবারের জন্য বড় ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী।

Ad

মঙ্গলবার পশ্চিম মেদিনীপুরের খড়গপুরে প্রশাসনিক বৈঠক থেকে মুখ্যমন্ত্রী ঘোষণা করেন, হাতির হামলায় কেউ প্রাণ হারালে তাঁদের পরিবারের একজনকে চাকরি দেওয়া হবে। তিনি বলেন, পশ্চিম মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম, বাঁকুড়া, পুরুলিয়ায় হামেশাই জঙ্গল থেকে বেরিয়ে লোকালয়ে হানা দেয় হাতির পাল। হাতির হানায় যেমন সম্পত্তিহানি হয়, তেমনই প্রাণহানিও হয়। এবার থেকে হাতির হানায় কারও মৃত্যু হলে তাঁর পরিবারের একজনকে স্পেশাল হোমগার্ডের চাকরি দেওয়া হবে।

আরও পড়ুন