রাজ্যে ভয়াবহ করোনা পরিস্থিতি, চিকি‍ৎসক-স্বাস্থ্যকর্মীদের ছুটি বাতিল, জরুরি নির্দেশিকা জারি স্বাস্থ্য দফতরের

UBG NEWS, নিজস্ব প্রতিনিধি: রাজ্যে ভয়াবহ করোনা পরিস্থিতি। দৈনিক ৮০০০-এর কাছকাছি করোনা রোগী মিলছে বঙ্গে। আর সেই কারণেই রাজ্যের সমস্ত হাসপাতাল গুলিতে জরুরি নির্দেশিকা দিল স্বাস্থ্য দফতর। ইতিমধ্যেই করোনা পরিস্থিতি নিয়ে একাধিক গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিয়েছে নবান্ন। এবার রাজ্যের হাসপাতাল গুলিতে কড়া নির্দেশিকা দিয়েছেন রাজ্যের স্বাস্থ্য অধিকর্তা।

চিঠিতে জানানো হয়েছে, রাজ্যে জেলা স্তরে করোনা নিয়ে নজরদারি ও সচেতনতা বাড়াতে হবে। বেশকিছু গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ নিতে হবে। প্রত্যেক জেলার সিএমওএইচ ও এমএসভিপি’দের জানানো হচ্ছে করোনা মোকাবিলায় অতিরিক্ত স্বাস্থ্যকর্মী ও লজিস্টিক সাপোর্ট বাড়াতে হবে জেলার হাসপাতাল গুলিতে। যার জন্য পুরো ছাড়পত্র দেওয়া হচ্ছে সিএমওএইচ ও এমএসভিপি’দের। প্রত্যেক রোগীদের যথাযথ চিকিৎসা পরিষেবা দেওয়ার দায়িত্ব তাদের। এরই সঙ্গে খেয়াল রাখতে হবে হাসপাতাল গুলিতে করোনা আক্রান্ত রোগীর শয্যা বরাদ্দ করতে হবে প্রয়োজনীয় ব্যক্তির জন্য। অর্থাৎ স্বল্প উপসর্গ কিংবা উপসর্গহীন রোগীর জন্য নয় সংকটজনক রোগীকেই হাসপাতালে ভর্তি রেখে চিকিৎসা করাতে হবে। জেলায় জেলায় পর্যাপ্ত সেফ হোম ও কোভিড কেয়ার সেন্টার বাড়াতে হবে। সেই জায়গা গুলিতে পর্যাপ্ত ট্রেনিং প্রাপ্ত স্বাস্থ্যকর্মীদের রাখতে হবে। প্রত্যেক করোনা হাসপাতালে পর্যাপ্ত অক্সিজেন, পিপিই কিট, ওষুধ, টেস্টিং কিট রাখতে হবে। এর সবটার উপর নজরদারি চালাবে জেলার স্বাস্থ্য আধিকারিকরা।

চিঠিতে এও জানানো হয়েছে, বেশিরভাগ হাসপাতালে ১২ ঘণ্টার ডিউটির রোস্টার আছে, যা দ্রুত পরিবর্তন করতে ৮ ঘণ্টায় নামিয়ে আনতে হবে। নাইট সিফটের উপর জোর দিতে হবে। করোনা চলাকালীন সমস্ত স্বাস্থ্য কর্মীর ছুটি বাতিল করা হয়েছে। শুধুমাত্র শারীরিক অসুস্থতা ও আপৎকালীন পরিস্থিতির ভিত্তিতে ছুটি মঞ্জুর করা হবে স্বাস্থ্যকর্মীদের। কেউ ইচ্ছাকৃত ভাবে হাসপাতাল চত্বর যখন ইচ্ছা ছেড়ে যেতে পারবে না।

রাজ্যে করোনার গ্রাফ উর্দ্ধমুখী তাই স্বাস্থ্য দফতরের তরফে জরুরি ভিত্তিতেই এই নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে।