Ad
রাজ্য

করোনা চিকিৎসা কেন্দ্র হোক সব রাজনৈতিক দলের পার্টি অফিস : সাংসদ দেব

এই বিজ্ঞাপনের পরে আরও খবর রয়েছে

ইউবিজি নিউজ ডেস্ক : ঘাটালের সাংসদ/অভিনেতা দেব অবশ্য এই প্রথম নয়, করোনা কালে ব্যক্তি উদ্যোগে এর আগেও অনেক মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন এবং সোশ্যাল মিডিয়ায় তা নিজেই জানিয়েছেন। সেটা তাঁর টুইটার হ্যান্ডেল দেখলেই স্পষ্ট হয়। তাঁর কাছে যাঁরা সাহায্য চেয়েছেন তাঁদের পাশে তো দাঁড়িয়েছেনই সেই সঙ্গে নিজের উদ্যোগে এগিয়েছেন অনেক ক্ষেত্রেই। কয়েকদিন আগেই সোশ্যাল মিডিয়া সূত্রে এক অসহায় বৃদ্ধার কথা জানতে পেরে তাঁকে সাহায্য করার জন্য নিজের থেকে ফোন নম্বরের খোঁজ করেন। কেউ কেউ তাঁর কাছে ওষুধের জন্য আবেদন করায় তিনি তার ব্যবস্থাও করে দিয়েছেন।

তবে এবার তিনি পশ্চিম মেদিনীপুরের ডেবরায় তাঁর অফিসকে আইসোলেশন ক্যাম্প বানিয়েছেন। সেই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্টও করেছেন। আর সেই সঙ্গেই সাংসদ দীপক অধিকারির বার্তা, সব রজানৈতিক দলের সব পার্টি অফিসই এখন মানুষের কাজের জন্য ব্যবহার করতে দেওয়া উচিত।

Ad

করোনা কালে অনেকের কাছেই তিনি ‘দেব’ রূপে দেখা দিয়েছেন গত কয়েক মাসে। নেপাল ও জম্মুতে লকডাউনে আটকে পড়া অনেক শ্রমিককে রাজ্যে ফেরানোর উদ্যোগ নেন তিনি। পরিযায়ী শ্রমিকদের অবস্থা নিয়ে টুইটেও সরব হয়েছিলেন। দাবি করেছিলেন, পরিযায়ী শ্রমিকদের জীবন নিয়ে অনেকেই ভাবিত নন। এও বলেছিলেন যে, দেশ কিংবা রাজ্যে মাটির কাছাকাছি থাকা মানুষদের শ্রম ছাড়া সভ্যতা অচল। এর পরেই প্রথমে নেপাল ও পরে জম্মু থেকে শ্রমিকদের বাংলায় ফেরান দেব।

এদিন তাঁর ডেবরার অফিসকে আইসোলেশন ক্যাম্প বানানো হলেও সেখানে উপস্থিত ছিলেন না দেব। কারণ, গত ২৫ অগস্ট থেকে তিনি হোম আইসোলেশনে রয়েছেন। সেদিন দেব নিজেই টুইট করে জানান, তাঁর বাড়ির ম্যানেজার উত্তম তাঁদের পরিবারের সদস্য হিসেবেই থাকেন। তিনি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত। উত্তমের রিপোর্ট পজিটিভ আসার পরে অভিনেতার বাড়িতেই তাঁকে আইসোলেট করে রাখার বন্দোবস্ত করা হয়েছে। সেই সঙ্গে দেব ও তাঁর পরিবারের অন্য সদস্যরা ১৪ দিন কোয়ারেন্টাইনে থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

আরও পড়ুন