দুয়ারে সরকার কর্মসূচির অগ্রগতিতে খুশি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, সরকারি কর্মীদের বাড়তি ভাতা

ইউবিজি নিউজ ডেস্ক : দুয়ারে সরকার ( duare sarkar) কর্মসূচির অগ্রগতিতে খুশি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (mamata banerjee)। রাজ্যে ১ ডিসেম্বর থেকে এই কর্মসূচি শুরু হয়েছে ব্লকে ব্লকে। ঘোষণা অনুযায়ী, ৪ টি পর্যায়ে ২০ হাজার সরকারি শিবির করা হবে। ইতিমধ্যেই অর্ধেকের বেশি শিবির করা হয়ে গিয়েছে।

নভেম্বরের শেষের দিকে বাঁকুড়ার সরকারি সভা থেকে দুয়ারে সরকার কর্মসূচির কথা ঘোষণা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

সেই অনুযায়ী, ১ ডিসেম্বর থেকে ব্লকে ব্লকে শুরু হয়েছে এই কর্মসূচি। ১২ টি সরকারি প্রকল্পের পরিষেবা সাধারণ মানুষের হাতের নাগালে আনার বন্দোবস্ত করা হয়েছে সরকারের তরফে।

এদিন দুয়ারে সরকার কর্মসূচি নিয়ে নবান্নে পর্যালোচনা বৈঠক করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পরে নবান্নে করা সাংবাদিক বৈঠকে তিনি জানিয়েছেন, ২০ ডিসেম্বর পর্যন্ত ১১ হাজার ৫৬ টি শিবির করা হয়েছে। যাতে ১ কোটি ১২ লক্ষ মানুষ পরিষেবা পেয়েছেন বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি আরও জানান, খাদ্যসাথী প্রকল্পে ৭ লক্ষ ১৪ হাজার আবেদনের মধ্যে তিন লক্ষ ১৮ হাজার মানুষের কাছে পরিষেবা পৌঁছে দেওয়া হয়েছে। অন্যদিকে স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্পে ৪১ লক্ষ মানুষ আবেদন করেছেন।

মুখ্যমন্ত্রী এদিন জানিয়েছেন, যে গতিতে কাজ হচ্ছে তাতে তিনি খুশি। এই পরিষেবার মডেল ভারতে নতুন, পাশাপাশি বিশ্বেও নতুন বলে দাবি করেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি এদিন জানিয়েছেন, যেসব সরকারি কর্মী এই পরিষেবায় দুমাস অংশ নিচ্ছেন, তাঁদের বাড়তি ৫ হাজার টাকা করে টিফিন ভাতা দেওয়া হবে।

এছাড়াও প্রাণীবন্ধু এবং প্রাণীমিত্রদের মাসিক ভাতা ১৫০০ টাকা থেকে বাড়িতে ৩ হাজার টাকা করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন। পাশাপাশি গ্রামের ভিআইপি কর্মীদের ভাতা ২০ দিনের থেকে বাড়িতে ৩০ দিন করা হয়েছে। এবার থেকে এইসব কর্মীরা মাসে ৫২০০ টাকা করে ভাতা পাবেন।

মুখ্যমন্ত্রী এদিন বলেন, একদিনে তিনি সব বলবেন না। মঙ্গলবার আরও বলবেন তিনি। তিনি বলেন, একসঙ্গে খেলে হজম হয়ে যায়। তাই পরে বলবেন তিনি। এদিন তিনি সংবাদ মাধ্যমের মৃদু সমালোচনা করে বলেন, সেখানে পজেটিভ জিনিস কম, নেগেটিভ জিনিস বেশি।

এদিন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বিজেপিতে চিটিংবাজ পার্টি বলে বর্ণনা করেন। তিনি জানান, বোলপুরে রবীন্দ্র সংস্কৃতি এবং রাঙামাটির মিছিলে যোগ দেবেন তিনি। প্রসঙ্গত তৃণমূলের তরফে আগেই জানানো হয়েছিল ২৯ ডিসেম্বর বোলপুরে যাবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বোলপুরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কর্মসূচিতে আড়াইলক্ষ মানুষের জমায়েত হবে বলে ইতিমধ্যেই দাবি করেছেন অনুব্রত মণ্ডল।