বাংলায় মহামারী আইন ভাঙার জন্য নাম না করে বিজেপিকে দুষলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

UBG NEWS, ডেস্ক : রাজ্যের করোনা (Coronavirus) গ্রাফ ক্রমশই ভয়াবহ রূপ নিচ্ছে। সুস্থতার হার বাড়ছে ঠিকই। তবে সংক্রমণের হার ভাবাচ্ছে প্রায় সকলকেই। এই পরিস্থিতিতে বাংলায় মহামারী আইন ভাঙার জন্য নাম না করে বিজেপিকে দুষলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

কোনভাবেই কেন্দ্রীয় সরকার রাজ্যকে সহযোগিতা করছে না বলেও অভিযোগ করেন তিনি। সুষ্ঠুভাবে দুর্গাপুজো করার জন্য ক্লাবকর্তা, পুজো কমিটি এবং পুলিশ প্রশাসনকে ধন্যবাদ জানান তিনি। তারপরই প্রশাসনিক বৈঠকের একেবারে শুরুতে নাম না করে বিজেপিকে খোঁচা দেন। তবে তা সত্ত্বেও বিজেপির (BJP) বিরুদ্ধে তাঁর অভিযোগ, কেউ কেউ ইচ্ছা করে বিসর্জনের সময় শোভাযাত্রা করছে।

তাদের জন্যই রাজ্যে করোনা সংক্রমণের গ্রাফও ঊর্ধ্বমুখী হচ্ছে বলেই অভিযোগ তাঁর। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “মহামারী আইন ভাঙছে একটি রাজনৈতিক দল।” এছাড়া এদিন আরও একবার কেন্দ্রের বিরুদ্ধে সুর চড়ান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। রাজ্য কেন্দ্র সরকারের ক্ষমতায় হস্তক্ষেপ না করলেও কেন্দ্র সরকার ইচ্ছাকৃতভাবে রাজ্যের ক্ষমতায় হস্তক্ষেপ করছে বলেও অভিযোগ তাঁর।

মুখ্যমন্ত্রীর কথায়, “লক্ষণের গণ্ডিরেখা যেন কেউ আমরা হস্তক্ষেপ না করি সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।” এছাড়াও কেন্দ্রের তরফ থেকে আমফান (Amphan) কিংবা করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় কোনওরকম আর্থিক সাহায্য পাওয়া যায়নি বলেও খোঁচা দিয়েছেন তিনি।

তবে কেন্দ্র কোনও সাহায্য না করলেও রাজ্য সুষ্ঠুভাবে করোনার মতো অতিমারী পরিস্থিতি সামাল দিতে পেরেছে বলেও জানান মুখ্যমন্ত্রী। এদিনের বৈঠকে পুলিশকে (Police) হুমকি প্রসঙ্গেও সরব হন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

তাঁর অভিযোগ, ইচ্ছাকৃতভাবে পুলিশদের ভয় দেখানো হচ্ছে। রাজ্যের আইএএস এবং আইপিএস আধিকারিকদের হুমকি দেওয়া হচ্ছে বলেও অভিযোগ তাঁর। রাজ্যের প্রশাসনিক আধিকারিকদের জব্দ করতে তাঁদের কর্মরতা স্ত্রীদের পরিকল্পনামাফিক অনেক দূরে বদলি করে দেওয়ার মতো ঘটনা ঘটছে বলেও জানান মুখ্যমন্ত্রী।

কোনওভাবেই ভয় না পেয়ে মাথা উঁচু করে কাজ করার কথাও বলেছেন রাজ্যের প্রশাসনিক প্রধান। জেলাশাসক এবং বিডিওদের নিজের কাজের প্রতি আরও দায়িত্ববান হওয়ার নির্দেশও দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।