Ad
রাজ্য

বিজেপিতে যোগ দিয়েই ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে জেড ক্যাটেগরির নিরাপত্তা পাচ্ছেন রাজীব

এই বিজ্ঞাপনের পরে আরও খবর রয়েছে

ইউবিজি নিউজ ব্যুরো : কয়েক মাস আগে বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পরেই ফুড কর্পোরেশন অফ ইন্ডিয়ার চেয়ারম্যান করা হয়েছিল শুভেন্দু অধিকারীকে। কেউ কেউ বলেছিলেন, বিজেপিতে যোগ দেওয়ার ‘পুরস্কার’ পেয়েছেন তিনি। সম্প্রতি মন্ত্রিত্ব ও দল ছেড়ে গেরুয়া শিবিরে নাম লিখিয়েছেন রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়। ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে তাঁকে দেওয়া হল জেড ক্যাটেগরির নিরাপত্তা।

সূত্রের খবর, রবিবার হাওড়ার ডুমুরজলার সভা শেষে রাতেই কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের দফতর থেকে রাজীবকে ফোন করে এই কথা জানানো হয়। রাজীবও জানিয়েছেন, সোমবার থেকেই এই নিরাপত্তা পাবেন তিনি। আগামীকাল দক্ষিণ ২৪ পরগনার বারুইপুরে প্রথম জনসভা করবেন রাজীব। তার আগেই এই নিরাপত্তা পাচ্ছেন তিনি।

Ad

এক মাসের বেশি সময় ধরে রাজীবের বিজেপিতে যোগদান নিয়ে জল্পনা চলছিল। একের পর এক সভা থেকে দলবিরোধী মন্তব্যের পরে এই জল্পনা আরও বাড়ে। তারপরে শুভেন্দুর ক্রোনোলজি মতো রাজীবও প্রথমে মন্ত্রিত্ব ছাড়েন। পরে বিধায়ক পদ ও সব শেষে দল ছাড়েন তিনি। আর তারপর শনিবার বিকেলেই বিশেষ বিমানে করে দিল্লি গিয়ে অমিত শাহের সঙ্গে দেখা করে তাঁর হাত থেকে গেরুয়া উত্তরীয় পরেন রাজীব।

অবশ্য রবিবার ডুমুরজলায় বিজেপির সভাতেই আনুষ্ঠানিকভাবে বিজেপিতে যোগ দিতে দেখা যায় রাজীবকে। মঞ্চ থেকে তৃণমূলের বিরুদ্ধে তীব্র আক্রমণ হানেন তিনি। বলেন, ‘আমি শুনছি আমার এবং আমাদের নামে কেউ কেউ অপশব্দ বলছেন। আমি একটা কথা বলে দিতে চাই, যত অপশব্দ বলবেন তত আশীর্বাদ বর্ষিত হবে আমাদের উপর। তত জেদ বাড়বে, জোশ বাড়বে।’ এখানেই থামেননি ‘জেন্টেলম্যান’ রাজনীতিক।

তাঁর কথায়, যখন কেউ তৃণমূল জয়েন করে তখন বলে কারও অনুপ্রেরণা আর উন্নয়নের জন্য যোগদান। আর যখন আরও উন্নয়নের জন্য কেউ সেই দল ছেড়ে আসে তখন বলে গদ্দার। এ কী সংস্কৃতি! আগামীকাল বারুইপুরের সভা দিয়েই নিজের নতুন ইনিংস শুরু করতে চলেছেন এই তরুণ নেতা। তার আগেই তাঁর নিরাপত্তা বাড়াল কেন্দ্র।

আরও পড়ুন