পুলিশের উদ্যেগে করোনা নিয়ে সচেতনতা প্রচার ও মাস্ক বিতরণ

অরূপ ঘোষ, ঝাড়গ্রাম:-ঝাড়গ্রাম জেলায় করোনার দ্বিতীয় ঢেউতে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়তে শুরু করেছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা।যার ফলে চিন্তায় পড়েছে ঝাড়গ্রাম জেলা প্রশাসনের ও জেলা স্বাস্থ্য দপ্তরের আধিকারিকরা।তাই করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসার জন্য বৃহস্পতিবার ঝাড়গ্রাম জেলার বেলিয়াবেড়া থানার তপসিয়া রান্টুয়া সহ একাধিক জায়গায় পথচলতি মানুষজন থেকে শুরু করে এলাকাবাসীকে বেলিয়াবেড়া থানার পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে এএসআই সাগর পান্ডা এর নেতৃত্বে কনস্টেবল মনীষ মাহাতো ও মিঠুন কর্মকার সহ অন্যান্য পুলিশকর্মীরা করোনা নিয়ে সচেতনতা মূলক প্রচার করেন।

সেইসঙ্গে যাদের মাস্ক নেই তাদেরকে মাস্ক বিতরণ করা হয়।বেলিয়াবেড়া থানার এএসআই সাগর পান্ডা ওই এলাকার ব্যবসায়ী থেকে স্থানীয় বাসিন্দাদের মাস্ক ব্যবহার করার জন্য অনুরোধ করেন। সেই সঙ্গে শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে চলার নির্দেশ দেন। এছাড়াও ভালো করে সাবান দিয়ে হাত ধোয়ার জন্য সকলের কাছে আবেদন জানান। তিনি ওই এলাকার ব্যবসায়ীদের করোনা নিয়ে মানুষকে সচেতন করার আবেদন জানান।

বেলিয়াবেড়া থানার পুলিশের উদ্যোগে করোনা নিয়ে মানুষকে সচেতন হওয়ার আবেদন জানিয়ে মাইকিং করে প্রচারের পাশাপাশি যাদের মাস্ক নেই সেই সব মানুষের হাতে মাস্ক ও স্যানিটাইজার তুলে দেওয়া হয়।আগামীদিনে গুলিতেও এইভাবে বেলিয়াবেড়া থানার বিভিন্ন প্রান্তে গিয়ে সচেতনতা প্রচার ও মাস্ক বিতরণ করা হবে বলে বেলিয়াবেড়া থানার পুলিশ আধিকারিক সাগর পান্ডা জানান।

সেইসঙ্গে তিনি বলেন রাজ্য প্রশাসনের পক্ষ থেকে যে আংশিক লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে তা মেনে চলার আবেদন জানান।এবং কেউ যদি ওই লকডাউন অমান্য করে প্রশাসনের পক্ষ থেকে তার বিরুধ্যে কড়া পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।