Ad
রাজনীতিরাজ্য

যতদিন বাঙালি প্রধানমন্ত্রী হবে না ততদিন সমস্যা মিটবে না , বিস্ফোরক দেব

এই বিজ্ঞাপনের পরে আরও খবর রয়েছে

ঘাটাল মাস্টার প্ল্যান রূপায়ণের দাবি নিয়ে মঙ্গলবার কেন্দ্রীয় জলসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রী গজেন্দ্র সিং শেখাওয়াতের সঙ্গে বৈঠক করেন রাজ্যের প্রতিনিধিদল। বৈঠকের পর ঘাটালের সাংসদ দেবের মন্তব্য ঘিরেই তৈরি হল বিতর্ক।

প্রায় প্রতি বছরের মতো এবার ঘাটালের বিস্তীর্ণ এলাকা প্লাবিত হয়। একটানা বৃষ্টি আর ডিভিসির জল ছাড়ার ফলে জলের তলায় চলে যায় বিঘার পর বিঘা জমি।ঘাটালের ওই পরিস্থিতি পরিদর্শনে গিয়েছিলেন দেব।

Ad

ঘাটাল মাস্টার প্ল্যান বাস্তবায়িত না হওয়ার ফলে সাধারণ মানুষকে বছরের পর বছর জলযন্ত্রণার শিকার হতে হচ্ছে বলেই দাবি করেন তিনি। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রধানমন্ত্রী না হলে ঘাটাল মাস্টার প্ল্যান বাস্তবায়িত হওয়া অসম্ভব বলেও দাবি করেন দেব।

এই তরজার মাঝেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নবান্নে সাংবাদিক বৈঠক করে জানান, বন্যা পরিস্থিতি মোকাবিলায় দিল্লিতে গিয়ে কেন্দ্রীয় জলসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন রাজ্যের মন্ত্রী-বিধায়কদের প্রতিনিধিদল। সেই মতো মঙ্গলবার দিল্লিতে গজেন্দ্র সিং শেখাওয়াতের সঙ্গে দেখা করেন তাঁরা।

বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন রাজ্যের মন্ত্রী, সাংসদ, বিধায়করা।“মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রধানমন্ত্রী হলে ঘাটাল মাস্টার প্ল্যান বাস্তবায়িত হবে”,পুরনো মন্তব্যের কথা তুলে ধরেন দেব।

দাবি করেন, নম্বর বাড়ানোর জন্য এরকমের মন্তব্য করেননি। তাঁর আরও দাবি, “একজন বাঙালি যদি প্রধানমন্ত্রী হন, এ-ও বলছি বিজেপির কেউ যদি প্রধানমন্ত্রী হন, যিনি মানুষের কষ্টের কথা বুঝবেন, শুধু ভোটের সময় সোনার বাংলা গড়ার কথা বলবেন না। আমার মতে একজন বাঙালি যদি প্রধানমন্ত্রী হতেন তা হলে সমস্যা দূর হত।”

তৃণমূলের তারকা সাংসদের মুখে বিজেপি নেতার প্রধানমন্ত্রী হওয়ার কথায় স্বাভাবিকভাবেই অস্বস্তির পরিস্থিতি তৈরি হয়। যদিও ওই মন্তব্যের পর আর কিছুই বলতে রাজি হননি দেব। পরিবর্তে সুখেন্দুশেখর রায়ই সমস্ত উত্তর দেন। অনেকের মতে, ঘাটাল মাস্টার প্ল্যান এখনও বাস্তবায়িত না হওয়া নিয়ে বিতর্ক জারি রয়েছে। ওই বিতর্ক ঢাকতে গিয়ে দেবের মন্তব্যে আরেক বিতর্ক তৈরি হল।

আরও পড়ুন