Ad
রাজ্য

নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের বিরোধিতার নামে তাণ্ডব ও অরাজকতা বরদাস্ত হবে না, আইন হাতে তুলে নিলেই গ্রেফতারঃ এসপি-দের নির্দেশ ডিজির

এই বিজ্ঞাপনের পরে আরও খবর রয়েছে

UBG NEWS: নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের বিরোধিতার নামে তাণ্ডব ও অরাজকতাকে বরদাস্ত না করার জন্য রাজ্যের সব জেলার পুলিশ সুপারদের নির্দেশ দিলেন ডিজি বীরেন্দ্র।

পুলিশ সুপারদের তিনি স্পষ্ট নির্দেশ দিয়েছেন, ‘আন্দোলনকারীরা আইন নিজেদের হাতে তুলে নিলেই ত‍ৎক্ষণা‍ৎ গ্রেফতার করতে হবে। কোথাও বাসে-ট্রেনে কিংবা অন্য কোনও সম্পত্তি ভাঙচুর করলে রেয়াত করা চলবে না। আজ রবিবারের মধ্যেই রাজ্যের সব জেলার আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে হবে।’

Ad

সূত্রের খবর, রাজ্যের সব থানার ওসিদের কাছে এই সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে দেওয়ারও নির্দেশ দিয়েছেন ডিজি।   নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের বিরোধিতার নামে গত দু’দিন ধরে রাজ্যের বেশ কিছু জেলায় কার্যত তাণ্ডবলীলা চালিয়েছেন আন্দোলনকারীরা। ধর্মীয় স্লোগান তুলে তাণ্ডব চালানোর অভিযোগ উঠেছে। ফলে জনস্বার্থ বিরোধী আইনের বিরোধিতা করে শুরু হওয়া আন্দোলনে ধর্মীয় রং লাগানোর সুযোগ পেয়েছেন ভিন ধর্মী মৌলবাদী সংগঠনগুলি।

নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের বিরুদ্ধে শুরু হওয়া আন্দোলনের প্রতি সহানুভূতিশীল হলেও, যেভাবে আন্দোলনের নামে তাণ্ডব চলছে তাতে বেজায় ক্ষুব্ধ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কোনওভাবেই অরাজকতা ও দাঙ্গা সৃষ্টির চেষ্টা বরদাস্ত করা হবে না বলে হুঁশিয়ারিও দিয়েছেন তিনি। পাশাপাশি রাজ্য পুলিশের ডিজিকে কঠোর হাতে ব্যবস্থা নিতে বলেছেন।


মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশ পাওয়ার পরেই নবান্ন থেকে টেলিফোনে রাজ্যের সব জেলার পুলিশ সুপারদের সঙ্গে বৈঠক করেন ডিজি বীরেন্দ্র। সূত্রের খবর, বৈঠকে মুর্শিদাবাদ, হাওড়া, বারাসত সহ বেশ কয়েকটি জেলার পুলিশ সুপারকে ভ‍র্ৎসনাও করেন তিনি। ২৪ ঘণ্টার মধ্যে অর্থা‍ৎ আজ রবিবারের মধ্যেই পরিস্থিতি স্বাভাবিক করার নির্দেশ দেন।

সরকারি সম্পত্তি যারা নষ্ট করেছে, তাঁদের অবিলম্বে চিহ্নিত করে রাজ্য সরকারের নতুন আইন অনুযায়ী কড়া ব্যবস্থা নিতে বলেছেন। রবিবার নতুন করে কেউ আন্দোলনের নামে তাণ্ডব চালালে সঙ্গে সঙ্গে গ্রেফতার করারও নির্দেশ দিয়েছে। পাশাপাশি শান্তিপূর্ণভাবে যারা আন্দোলন করবে, তাদের হয়রানি না করার জন্যও জেলার পুলিশ সুপারদের সতর্ক করে দিয়েছেন ডিজি।

আরও পড়ুন