Ad
রাজ্য

রাজ্যে ৪ থেকে ৫ লক্ষ অনুপ্রবেশকারীদের নাম রয়েছে ভোটার লিস্টে, বিস্ফোরক অভিযোগ দিলীপ ঘোষের

এই বিজ্ঞাপনের পরে আরও খবর রয়েছে

ইউবিজি নিউজ ডেস্ক : রাজ্যের সীমান্ত লাগোয়া জেলাগুলি অনুপ্রবেশকারীদের মুক্তাঞ্চল হয়ে উঠেছে। লক্ষ লক্ষ অনুপ্রবেশকারীদের নিয়ে নিজেদের ভোট ব্যাঙ্ক তৈরি করেছে শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস।  এমন অভিযোগ সাম্প্রতিক কালে একাধিকবার করেছে রাজ্যে বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্বরা। এবার নির্বাচনের আগে গুরুতর অভিযোগ করলেন রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ। রাজ্যের ভোটার লিস্টে ৪ থেকে ৫ লক্ষ অনুপ্রবেশকারী ঢুকে পড়েছে। এদের মধ্যে রোহিঙ্গারাও রয়েছে বলে অভিযোগ দিলীপ ঘোষের।

বিধানসভা নির্বাচনে দলের প্রচার থেকে সাংগঠনিক কাজের জন্য রাজ্যের এক প্রান্ত থেকে অপর প্রান্তে ছুটে বেড়াচ্ছেন দিলীপ ঘোষ। বুধবার ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তের ফুলবাড়িতে ছিলেন দিলীপ ঘোষ। সেখান থেকে তিনি অভিযোগ করেন,’আগে সিপিএম সরকারও অনুপ্রবেশকারীদের নিয়ে এসে ভোটার বানাতো। বর্তমান সরকারও তা চালিয়ে যাচ্ছে। এবার ভোটার লিস্টে ৪ থেকে ৫ লক্ষ অনুপ্রবেশকারী রয়েছে। যাদের মধ্যে রোহিঙ্গারাও রয়েছে’।

Ad

অনুপ্রবেশকারীদের জন্য রাজ্যেই আইনি শৃঙ্খলা ভেঙে পড়ছে বলেও অভিযোগ করেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি। তিনি বলেন,’এই অনুপ্রবেশকারীদের জন্য সোনা পাচার, গরু পাচার এছাড়াও একধিক বেআইনি কার্যকলাপ বৃদ্ধি পেয়েছে। যা দেশের পক্ষেও খুবই বিপজ্জনক।’ রাজ্যে অনুপ্রবেশকারীদের বাড়বাড়ন্তের জন্য শাসক দলকেই কাঠগড়াতে তোলেন দিলীপ ঘোষ।

বুধবার থেকে রাজ্যে আসছে নির্বাচন কমিশনের ফুল বেঞ্চ। তিন দিনে সফরে ঠাসা কর্মসূচি রয়েছে সুনীল অরোরা, সুদীপ জৈনদের। ভোটার লিস্টের তালিক নিয়ে বৈঠকের পাশাপাশি এসপি, জেলাশাসক, সরকারি আমলা, রাজনৈতিক দল সকলের সঙ্গে বৈঠক করেবম নির্বাচন কমিশনের কর্তারা। অবাধ ভোট করতে তৎপর কমিশনও। নির্বাচন কমিশনের ফুল বেঞ্চ যেদিন রাজ্যে আসছে সেদিনই দিলীপ ঘোষের এই অভিযোগ যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ বলেই মত রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের।

আরও পড়ুন