দরিভিট কান্ডের ২ বছর পুর্তিতে মৃত দুই ছাত্রের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে পালিত হল বাংলা ভাষা দিবস

উত্তর দিনাজপুর, ২০ সেপ্টেম্বরঃ ২ বছর আগে ২০ সেপ্টেম্বর বিদ্যালয়ে বাংলা ভাষায় শিক্ষকের দাবিতে আন্দোলন করতে গিয়ে রাজেশ ও তাপস নামে দুই ছাত্রের পুলিশের গুলিতে মৃত্যুর অভিযোগ ওঠে। সেই দিনটিকে স্মরণে রেখে মৃত দুই ছাত্রের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে উত্তরদিনাজপুর জেলার ইসলামপুর মহকুমার দাড়িভিটে পালিত হল বাংলা ভাষা দিবস।

বিজেপির উদ্যোগে আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন তপশীল মোর্চার নব নির্বাচিত রাজ্য সভাপতি তথা বাগদার বিধায়ক দুলাল চন্দ্র বর, বিজেপি রাজ্য সাধারণ সম্পাদক রথীন্দ্র বোস সহ অন্যান্য বিজেপি নেতৃত্ব।

দারিভিটে এসে প্রথমেই মৃত দুই ছাত্রের সমাধিস্থলে গিয়ে ফুলদিয়ে শ্রদ্ধার্ঘ জানান বিজেপি নেতৃত্ব। সমাধিস্থলে উপস্থিত ছিলেন মৃত দুই ছাত্রের পরিবারও। সমাধিস্থলে গিয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন মৃত দুই ছাত্রে পরিবারের সদস্যরা।

মৃত ছাত্র রাজেশ এবং তাপসের স্মরণ সভায় যোগ দেওয়ার পর সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তপশীলি মোর্চার রাজ্য সভাপতি দুলাল চন্দ্র বর বলেন, যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বিরোধী নেত্রী হিসেবে কোন ঘটনা ঘটলেই সি বি আই তদন্ত চাইতেন, তিনিই মুখমন্ত্রী হিসেবে দাড়িভিটের ঘটনার সিবিআই তদন্তে বাধা দিচ্ছেন। বিজেপি সিবিআই তদন্তের দাবীতে মৃত দুই ছাত্রের পরিবারের পাশে সব সময় থাকবে বলে আশ্বাস দেন তিনি।

মৃত দুই ছাত্র রাজেশ এবং তাপসের সমাধিতে পুষ্পার্ঘ প্রদান এবং স্মরণ সভার পর, দাড়িভিট বাজারে মৃত রাজেশ ও তাপসের আবক্ষ মূর্তি গড়ার জন্য ভিত্তি স্থাপন করা হয়। অন্যদিকে রায়গঞ্জে জেলা বিজেপি কার্যালয়ে স্মরণ সভা আয়োজনের মধ্যে দিয়ে মৃত দুই ছাত্রের প্রতিকৃতিতে মাল্যদান করেন উত্তর দিনাজপুর জেলা বিজেপি সভাপতি বিশ্বজিৎ লাহিড়ী সহ অন্যান্য বিজেপি নেতৃত্ব। জেলা বিজেপি সভাপতি বিশ্বজিৎ লাহিড়ীও সিবিআই তদন্তের দাবীতে রাজেশ এবং তাপসের পরিবারের পাশে থাকার আশ্বাস দেন।

২০১৮ সালের ২০ সেপ্টেম্বর উত্তর দিনাজপুর জেলার ইসলামপুর ব্লকের দাড়িভিট হাইস্কুলে বাংলা বিষয়ের শিক্ষকের দাবিতে আন্দোলনে নামেন স্কুলের ছাত্রছাত্রী সহ অভিভাবক অভিভাবিকারা। ছাত্রছাত্রীদের সেই আন্দোলনকে প্রতিহত করতে গিয়ে ছাত্র-পুলিশের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। পুলিশের গুলিতে দাড়িভিট হাইস্কুলের দুই প্রাক্তন ছাত্র রাজেশ সরকার ও তাপস বর্মনের মৃত্যু হয় বলে অভিযোগ।

গুলিবিদ্ধ হয়ে এক ছাত্র গুরুতর জখমও হয়। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে তোলপাড় হয়ে ওঠে রাজ্য রাজনীতি। ঘটনার সিবিআই তদন্তের দাবীতে দীর্ঘদিন ধরে আন্দোলন চালায় মৃত ছাত্রদের পরিবার ও বিজেপি। সেই ঘটনার আজ দ্বিতীয় বছর পূর্ণ হলেও দোষী পুলিশদের সনাক্ত করা বা শাস্তির ব্যবস্থা আজও হয়নি বলে অভিযোগ।

মৃত দুই ছাত্রের মৃত্যুর ঘটনায় রাজ্য সরকার সি আই ডি তদন্তের নির্দেশ দেয়। পুলিশের গুলিতে মৃত দাড়িভিট স্কুলের দুই প্রাক্তন ছাত্র রাজেশ ও তাপসকে ভাষা শহীদ হিসেবে চিহ্নিত করে আজও দাড়িভিট গ্রামের মানুষ সমাধির মাধ্যমে তাঁদের স্মরণে রেখেছেন।