Ad
তথ্যপ্রযুক্তিদেশ

এবার হোয়াটস অ্যাপ থেকে বন্ধু ও আত্মীয়দের টাকা পাঠান, লাগবে না কোনও ফি

এই বিজ্ঞাপনের পরে আরও খবর রয়েছে

UBG NEWS, ডেস্ক : ‘এবার থেকে আপনি হোয়াটস অ্যাপ ব্যবহার করে বন্ধু ও আত্মীয়দের টাকা পাঠাতে পারবেন। হোয়াটস অ্যাপে মেসেজ পাঠানো যেমন সহজ, টাকা পাঠানোও তেমনই সোজা হবে। এতে কোনও ফি লাগবে না। এই সিস্টেমকে ১৪০ টি ব্যাঙ্ক সাপোর্ট করে।’ শুক্রবার এক ভিডিও বার্তায় ভারতে হোয়াটস অ্যাপ ব্যবহারকারীদের এমনই জানিয়েছেন ফেসবুকের চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার মার্ক জুকেরবার্গ।

সম্প্রতি ভারতে হোয়াটস অ্যাপের মাধ্যমে পেমেন্ট সার্ভিস চালানোর অনুমতি পেয়েছে ফেসবুক ইনকর্পোরেটেড। তারপরেই জুকেরবার্গ ওই বার্তা পাঠান। ন্যাশনাল পেমেন্ট কর্পোরেশন অব ইন্ডিয়া বিবৃতি দিয়ে বলেছে, হোয়াটস অ্যাপ ভারতে তৈরি মাল্টি ব্যাঙ্ক ইউনিফায়েড পেমেন্ট ইন্টারফেস (ইউপিআই) ব্যবহার করতে পারবে।

Ad

প্রতি বছর নতুন ২ কোটি গ্রাহক হোয়াটস অ্যাপের ইউপিআই ব্যবহার করেন। ফেসবুক বহুদিন ধরেই ভারতে হোয়াটস অ্যাপ পেমেন্ট সার্ভিস চালু করার চেষ্টা করছে। কিন্তু নানা আইনি বাধায় এতদিন খুব অল্প সংখ্যক গ্রাহকই ওই সুবিধা নিতে পারতেন। ভারতে অনলাইন পেমেন্ট মার্কেটে ইতিমধ্যে রয়েছে দেশি কোম্পানি পেটিএম, আলফাবেট ইনকর্পোরেটেডের গুগল পে, ওয়ালমার্ট ইনকর্পোরেটেডের ফোন পে, অ্যামাজন ডট কম ইনকর্পোরেটেডের অ্যামাজন পে এবং আরও কয়েক ডজন স্টার্ট আপ সংস্থা।

তার পরেও ফেসবুক ভারতের বাজারে পেমেন্ট সার্ভিস চালু করার আগ্রহ দেখাচ্ছে। কারণ এখানে গ্রাহকের সংখ্যা ৪০ কোটি। ২০২৩ সালের মধ্যে ডিজিটাল পেমেন্টের বাজারের পরিমাণ দাঁড়াবে ১ হাজার কোটি ডলার। এদেশে হোয়াটস অ্যাপ মেসেজিং সার্ভিস খুবই জনপ্রিয়।

সারা বিশ্বে ভারতেই সবচেয়ে বেশি সংখ্যক মানুষ ওই সার্ভিস ব্যবহার করেন। সেই জনপ্রিয়তাকে হাতিয়ার করেই ডিজিটাল পেমেন্ট সার্ভিস চালু করতে চায় হোয়াটস অ্যাপ। আমেরিকা ও ইউরোপের নানা দেশে নতুন করে গ্রাহক সংখ্যা বাড়ানোর সম্ভাবনা নেই। তাই ভারতের বাজার ফেসবুকের কাছে বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ। কীভাবে হোয়াটস অ্যাপের মাধ্যমে টাকা পাঠাবেন এই সার্ভিস ব্যবহার করার জন্য প্রথমে হোয়াটস অ্যাপের লেটেস্ট ভার্সন ডাউনলোড করতে হবে। তবে পেমেন্ট অপশন পাওয়া যাবে।

অ্যাপ খুলে যে কন্ট্যাক্টে টাকা পাঠাতে চান, তা সিলেক্ট করতে হবে। যে আইকনটিকে পেপার ক্লিপের মতো দেখতে, তার ওপরে ট্যাপ করতে হবে। হোয়াটস অ্যাপ মেসেজের সঙ্গে কিছু পাঠাতে হলে আমরা ওই আইকনটির ওপরে ট্যাপ করি। ট্যাপ করার পরে যে সব অপশন আসবে তার মধ্যে পেমেন্ট আইকন সিলেক্ট করতে হবে। সেই আইকনে টাকার প্রতীক থাকবে।

কেউ যে পরিমাণ টাকা পাঠাতে চান তা হোয়াটস অ্যাপে মেসেজ টাইপ করার জায়গায় লিখতে হবে। তারপর প্রেস করতে হবে সেন্ড বাটন। হোয়াটস অ্যাপ তখন গ্রাহকের চার ডিজিটের ইউপিআই পিন জানতে চাইবে। সেই কোড দিয়ে তা অনুমোদন করার জন্য টিক চিহ্ন দেওয়া একটি বাটনে চাপ দিতে হবে। এই পুরো প্রক্রিয়া শেষ হতে লাগবে মাত্র ১০ সেকেন্ড।

আরও পড়ুন