Facebook Avatar:খুব সহজেই তৈরি করুন আপনার “ফেসবুক অবতার” শিখে নিন এখনি

ইউবিজি নিউজ ডেস্ক : সামাজিক যোগাযোগের ওয়েবসাইট ফেসবুক ভারতে অবতার চালু করেছে। এর আওতায় ফেসবুক ব্যবহারকারীরা নিজের মতো দেখতে ভার্চুয়াল অবতার(Facebook Avatar) তৈরি করতে পারেন। ফেসবুক এমন এক সময়ে এই বৈশিষ্ট্যটি চালু করেছে যখন দেশে টিকটোক সহ 59 টি চীনা অ্যাপস নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

স্টিকার হিসাবে আড্ডা এবং মন্তব্যে ফেসবুকের মাধ্যমে তৈরি করা এই অবতারটি ভাগ করতে পারেন। সংস্থাটি জানিয়েছে যে এটি ভারতে চালু করা হয়েছে। যেহেতু লকডাউনের কারণে সামাজিক যোগাযোগ বাড়ছে।
ফেসবুকের জন্য ভারত বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম বাজার এবং সুযোগটি কাজে লাগিয়ে সংস্থাটি এই বৈশিষ্ট্যটি ভারতের জন্য চালু করেছে। ফেসবুক অবতারে বিভিন্ন মুখ, চুলের স্টাইল এবং পোশাকে ভারতের ব্যবহারকারীদের জন্য কাস্টমাইজ করা বিকল্প থাকবে।

ফেসবুক ইউজাররা এখন ব্যস্ত হয়ে উঠেছে ফেসবুক অবতার তৈরি করতে। মূলত এটি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র অস্ট্রেলিয়া নিউজিল্যান্ড ইউরোপ এবং কানাডার বাসিন্দাদের জন্য প্রাথমিকভাবে উপলব্ধ ছিল। বেশকিছু ভারতীয় ইউজার এখন ব্যবহার করতে পারছেন এই নতুন ফিচার। এই নতুন ফিচারে ইউজার নিজেকে কার্টুনের চরিত্র দিতে পারবেন। দিন দুয়েকের মধ্যেই বিশ্বজুড়ে বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে এই ফিচার।

তবে এখনও অনেকের মনে প্রশ্ন এই ফেসবুক অবতার তৈরি করে কি করে? ফেসবুক ইউজারের একাংশ নিজেকে কার্টুন রূপে দেখার জন্য ইতিমধ্যে ব্যবহার করে ফেলেছে। আপনি যদি সেই দলে নাম লেখাতে চান, তাহলে জেনে নিন কিভাবে তৈরি করবেন ফেসবুক অবতার।

প্রথমত গুগল প্লে তে গিয়ে আপনার ফেসবুক অ্যাপটির আপডেট করুন।

ফেসবুক খোলার পর ডান দিকের কোণে যে তিনটি দাগ রয়েছে, সেখানে ক্লিক করুন।

এরপর নিচের দিকে স্ক্রল করে’ সি মোর’ অপশনে ক্লিক করুন।

এরপরই অবতার অপশনটি দেখতে পাবেন।

এই অপশনে ক্লিক করে, আপনি নিজের হেয়ার স্টাইল চশমা পোশাক গায়ের রং মোটা না রোগা শরীরের সমস্ত কিছু বিবরণ এ সিলেক্ট করতে পারবেন।

এমনকি নাকছাবি পড়েন কিনা সেই অপশন রয়েছে সেখানে।

একের পর এক অপশন সিলেক্ট করে নিজের কার্টুন চরিত্র তুলে এরপর ফেসবুকে শেয়ার অথবা হোয়াটসঅ্যাপে শেয়ার করার অপশন দেওয়া হবে।

এছাড়া যদি আপনার কোন বন্ধু ইতিমধ্যেই ফেসবুক অবতার ব্যবহার করে থাকেন তবে তার পোস্টের নিচে ধাকা অপশন Try it ক্লিক করেও আপনি পৌছে যাবেন পরবর্তী ধাপে।

জানা যাচ্ছে এর আগে এত দ্রুত কোন ফিচার জনপ্রিয় হয়ে ওঠে নি ফেসবুকে।

এরপরে আপনি যখন কোন পোষ্টের কমেন্টে স্মাইলি দিতে চাইবেন তখন আপনার কার্টুন চরিত্রটি স্পিকার হিসেবে পাঠাতে পারবেন