সেবনেও না প্রচারেও না, তার জন্য বিয়ার প্রস্তুতকারী সংস্থার লোগো সরাচ্ছে সিএসকে

ইউবিজি নিউজ ডেস্ক : তাঁর ধর্ম অ্যালকোহল সেবনের পরিপন্থী। ধর্মের কথা মেনে যেহেতু তিনি অ্যালকোহল থেকে দূরে থাকেন, তাই কোনও বিয়ার বা মদ প্রস্তুতকারী সংস্থার বিজ্ঞাপনী প্রচার তিনি তাঁর মাধ্যমে চান না। আর সেই কারণেই চেন্নাই সুপার কিংস কর্তৃপক্ষের কাছে তাঁর জার্সি থেকে বিয়ার প্রস্তুতকারক সংস্থার লোগো সরানোর অনুরোধ করলেন মইন আলি।

জাতীয় দল হোক কিংবা ফ্র্যাঞ্চাইজি দল। জার্সিতে মদ প্রস্তুতকারক সংস্থার লোগো থেকে সবসময় বিরত থেকেছেন ইংল্যান্ডের এই ক্রিকেটার। আইপিএলে নয়া ফ্র্যাঞ্চাইজির ক্ষেত্রেও অন্যথা হল না। মইনের এই অনুরোধ মেনে তাঁর জার্সি থেকে বিয়ার প্রস্তুতকারক সংস্থার লোগো সরানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সিএসকে কর্তৃপক্ষ। অর্থাৎ, সতীর্থদের জার্সিতে থাকলেও মইনের জার্সিতে সংশ্লিষ্ট সংস্থার লোগো থাকবে না।

উল্লেখ্য, চেন্নাইজাত এসএনজি ডিস্টিলারিজ সংস্থার তৈরি বিয়ার এসএনজি ১০০০০’র লোগো রয়েছে ইয়েলো ব্রিগেডের জার্সিতে। উল্লেখ্য, গত মরশুমে ইংল্যান্ডের কাউন্টি ক্লাব সমারসেটের হয়ে খেলার সময় জার্সিতে এমনই এক সংস্থার নাম থাকায় বিতর্কের মুখে পড়তে হয়েছিল বাবর আজমকে। যদিও পরে পাক ক্রিকেটারের অনুরোধে জার্সি থেকে সেই লোগো সরিয়ে দিয়েছিল সমারসেট।

গত মরশুমের পর মইন আলিকে আর রিটেইন করেনি রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর। ২০২১ আইপিএলের আগে মিনি নিলামে ৭ কোটি টাকায় এই স্পিনিং অল-রাউন্ডারকে ঘরে তুলে নেয় ধোনির সিএসকে। ২০১৮ ব্যাঙ্গালোরের পর আইপিএলে ইংরেজ ক্রিকেটারের এটাই দ্বিতীয় ফ্র্যাঞ্চাইজি। ব্যাঙ্গালোরের হয়ে তিনটি মরশুমে ১৯টি আইপিএল ম্যাচ খেলেছেন ৩৩ বছরের মইন। ঝুলিতে রয়েছে ৩০৯ রান এবং ১০টি উইকেট। ইতিমধ্যেই ধোনির অধিনায়কত্বে খেলার জন্য উৎসাহ প্রকাশ করেছেন তিনি।

চেন্নাই সুপার কিংসের ওয়েবসাইটে এক সাক্ষাৎকারে মইন জানিয়েছিলেন, ‘এমএস ধোনির নেতৃত্বে খেলা ক্রিকেটারদের সঙ্গে কথা বলে আমি জেনেছি কীভাবে ও দলের ক্রিকেটারদের পারফরম্যান্সে উন্নতি করতে সাহায্য করে। আমার বিশ্বাস অসাধারণ অধিনায়কেরা এমনই হয়ে থাকে।’ মইন আরও বলেন, ‘আমার মনে হয় সকল ক্রিকেটারেরই একটা সুপ্ত বাসনা থাকে এমএসের নেতৃত্বে খেলার। যেহেতু ও ক্রিকেটারদের আত্মবিশ্বাস এবং স্বচ্ছতা দেয়। আমি উত্তেজিত।’