মমতার ছবিতে কপালে লাল টিপ, সিঁথিতে সিঁদুর,এই বিকৃত কাজ বিজেপির দুষ্কৃতীদের দাবি তৃণমূলের

ইউবিজি নিউজ ডেস্ক : ভোট প্রচারের তাগিদ শালীনতার সীমা ছাড়াচ্ছে। এবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee) ছবি বিকৃত করা হল পূর্ব বর্ধমান (Purba Bardhaman) জেলার ভাতার (Bhatar) বিধানসভা কেন্দ্রে। শুরু হয়েছে রাজনৈতিক চাপানউতোর।

ভাতারের তৃণমূল প্রার্থী (TMC Candidate) মানগোবিন্দ অধিকারীর প্রচারে একটি ব্যানার লাগানো হয়েছিল এলাকায়। নিত্যানন্দপুর গ্রামে রাস্তার পাশে লাগানো হয়েছিল ব্যানারটি। যাতে একদিকে রয়েছে প্রার্থীর ছবি, অন্যদিকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি।

সোমবার স্থানীয় বাসিন্দারা দেখতে পান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবির সিঁথিতে সিঁদুর এঁকে দেওয়া হয়েছে। আর কপালে গোল করে লাল টিপ পরিয়ে দেওয়া হয়েছে। দলনেত্রীর ছবি বিকৃত করা হয়েছে, এই খবর দাবানলের মতো ছড়িয়ে পড়ে গোটা এলাকায়। খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন তৃণমূল (TMC) কর্মী ও সমর্থকরা। বিষয়টি দেখে ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন তাঁরা। বেশ কিছুক্ষণ বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন।

স্থানীয় তৃণমূল কর্মী ও সমর্থকদের অভিযোগ বিজেপি (BJP) আশ্রিত দুষ্কৃতিরাই এই কাজ করেছে। তবে স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্বের পক্ষ থেকে এই অভিযোগ অস্বীকার করা হয়েছে। নিত্যানন্দপুর অঞ্চল যুব তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি হাফিজ মণ্ডলের অভিযোগ, “বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীরা রাতের অন্ধকারে এই ধরনের নোংরা কাজ করেছে। ওরা ভোটের আগে অশান্তির সৃষ্টি করতে চাইছে।

আমরা পুলিশের কাছে তদন্তের দাবি জানিয়েছি। নির্বাচনে মানুষ ভোট দিয়ে যোগ্য জবাব দেবেন।” অন্যদিকে বিজেপির ভাতার ৩৩ নম্বর মণ্ডল সভাপতি রাজকুমার হাজরা বলেন, “এই অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন। ভারতীয় জনতা পার্টি এই ধরনের নোংরা রাজনীতিতে বিশ্বাস করে না। প্রয়োজনে পুলিশ তদন্ত করে দেখুক।” গোটা ঘটনায় এলাকায় তীব্র চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। পরিস্থিতি বেশ থমথমে বলেই খবর। উল্লেখ্য, ২২ এপ্রিল হবে ভাতার এলাকার ভোটগ্রহণ।