ভ্যাকসিন না পেয়ে ব্লক অফিস চত্বরে তুমুল বিক্ষোভ কয়েকশো মহিলার

নিজস্ব প্রতিনিধি, পুরাতন মালদাঃ করোনার ভ্যাকসিন না পেয়ে পুরাতন মালদা ব্লক অফিস চত্বরে তুমুল বিক্ষোভ দেখালেন কয়েকশো মহিলারা। এমনকি উত্তেজিত একাংশ মানুষ মারমুখী হয়ে ওঠেন ব্লকের কয়েকজন কর্মীকে বলে অভিযোগ। বুধবার দুপুরে ঘটনাটি ঘটেছে পুরাতন মালদা ব্লক অফিস চত্বরে।

এদিকে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যেতে দেখেই তড়িঘড়ি ব্লক অফিস থেকে খবর দেওয়া হয় পুরাতন মালদা থানায়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ব্লক অফিস চত্বরে পৌঁছায় পুরাতন মালদা থানার বিশাল পুলিশবাহিনী। এরই মধ্যে হঠাৎ করে বিজ্ঞপ্তি জারি করে সাধারণ মানুষকে করোনার ভ্যাকসিন দেওয়া হবে না বলে জানিয়ে দেওয়া হয়। যা নিয়ে তুমুল অসন্তোষ ছড়িয়ে পড়ে ওই ব্লক অফিস চত্বরে।

উপস্থিত ভ্যাকসিন নিতে আসা মহিলাদের অভিযোগ, এদিন সকাল ৭টা থেকে করোনার ভ্যাকসিন পাবো বলে লাইনে দাঁড়িয়ে আছি। দূরদূরান্ত থেকে টোটো, অটো ভাড়া করে এই অফিসে আসতে হয়েছে। দুপুর গড়িয়ে যাওয়ার পর জানানো হচ্ছে ভ্যাকসিন দেওয়া হবে না। তাহলে এব্যাপারে কেন আগাম কোনও বিজ্ঞপ্তি জারি করা হলো না। তার জন্য এদিন কয়েকশো মহিলারা ক্ষেপে গিয়ে ব্লক অফিসের সামনে বিক্ষোভ দেখায়। পরে পুলিশি হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে।

এদিকে এই পরিস্থিতির কথা জানতে পেরে ব্লক অফিসে আসেন পুরাতন মালদা পঞ্চায়েত সমিতির সহ-সভাপতি হারেজ আলী। তিনি বলেন, এই পরিস্থিতিতে যারা কেনাবেচার সাথে যুক্ত, যেমন ক্ষুদ্রব্যবসায়ী, হকার এরকম মানুষকে আগে প্রাধান্য দিয়ে ভ্যাকসিন দেওয়া হচ্ছে। সমাজের সাথে যারা যোগাযোগ রেখে কাজ করে চলেছেন, যেমন বিভিন্ন ধরনের স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার সদস্য, নিত্য প্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রী বিক্রেতা, এরকম মানুষের আগে ভ্যাকসিন দেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে। জীবনদায়ী এই ভ্যাকসিন যেভাবে মিলছে সেইভাবে সাধারণ মানুষকে দেওয়া হচ্ছে। এনিয়ে অযথা আতঙ্কিত হবার কিছুই নেই। সংশ্লিষ্ট ব্লকের সমস্ত মানুষেরাই ঠিক সময়ের মধ্যে করোনার ভ্যাকসিন পাবে।