উত্তরকন্যা অভিযানে পুলিশের শর্টগান ব্যবহারের ভিডিও টুইট কৈলাস বিজয়বর্গীয়ের

UBG NEWS: বিজেপির উত্তরকন্যা অভিযানে উলেন রায় নামক এক ব্যক্তির মৃত্যু ঘিরে তোলপাড় বঙ্গ রাজনীতি। একদিকে বাংলা গেরুয়া শিবির দাবি করছে মমতার পুলিশ শান্তিপূর্ণ মিছিলে অযাচিতভাবে লাঠিচার্জ ও গুলি ছোড়ে। আর সেই গুলির আঘাতে মৃত্যু হয় তাদের দলের কর্মী উলেন রায়ের।

আবার অন্যদিকে পশ্চিমবঙ্গ পুলিশ অভিযোগ মানতে নারাজ। তারা জানিয়েছে ময়নাতদন্ত রিপোর্ট অনুযায়ী ওই ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে শটগানের গুলিতে। আর পশ্চিমবঙ্গ পুলিশ কোনরকম শটগান ব্যবহার করে না। মিছিলের মধ্যে কেউ আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে এসেছিল বলে দাবি জানিয়ে টুইট করেছিল পশ্চিমবঙ্গ পুলিশ।

তবে বিজেপি পুলিশের কথা মেনে নেয়নি। বরং উল্টো পাল্টা জবাব দিয়েছেন বাংলা বিজেপির প্রথম সারির নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয়। তিনি গতকাল রাত ১১:৪০ নাগাদ একটি ভিডিও টুইট করেন। সেই ভিডিওতে তিনি স্পষ্ট বলেন, “মমতাজির পুলিশ মিথ্যেবাদী।”

তিনি জানিয়েছেন, উত্তরকন্যা অভিযানে পশ্চিমবঙ্গ পুলিশ শর্টগান দিয়ে গুলি চালিয়েছিল। আর সেই গুলিতে মৃত্যু হয়েছে তাদের কর্মীর। তিনি তার ভিডিওতে প্রমাণ স্বরূপ পুলিশের শটগান ব্যবহার করার ভিডিও পোস্ট করেছেন। সেই সাথে হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছেন, মমতার পুলিশকে তিনি সুপ্রিম কোর্ট অব্দি টেনে নিয়ে যাবেন।

অন্যদিকে তৃণমূলের বর্ষিয়ান নেতা সৌগত রায় পাল্টা জবাব দিয়েছেন কৈলাস বিজয়বর্গীয় ভিডিওর। তিনি জানিয়েছেন, “একদিকে কৈলাসবাবু ভিডিও পোস্ট করে বলছেন পশ্চিমবঙ্গ পুলিশ শটগান ব্যবহার করেছে। আবার অন্যদিকে পশ্চিমবঙ্গ পুলিশ জানিয়েছে তারা কোনদিন শটগান ব্যবহার করে না। এরমধ্যে রাজ্য সরকার পুলিশের পাশে দাঁড়াবে।

কৈলাসবাবুর ভিডিও র সত্যতা এখনো যাচাই করা হয়নি। ফরেনসিক রিপোর্ট এলে তবেই জানা যাবে আসল সত্যিটা কি। তাই এখনই কৈলাস বিজয়বর্গীয় কথা বিশ্বাস করব না। রাজ্য সরকার পুলিশের পাশে আছে।”

গতকাল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় উত্তরকন্যা ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছেন। তিনি সরাসরি কটাক্ষ করে বলেছিলেন, “বিজেপি নিজের মিছিলে নিজের লোকদের মেরে দিচ্ছে। নির্বাচনের আগে পাবলিসিটি, প্রোপাগান্ডা করার জন্য এতটা নিচে কেউ কি করে নামতে পারে। বিজেপি রাজ্য ঝড়ের বেগে কুৎসা ও অরাজকতা রাজনীতি শুরু করছে। আমি সেটা হতে দেব না। আমি শুধু চাই ঝড়ের বেগে কাজ হোক আর রাজ্যের উন্নয়ন হোক।”