Ad
উত্তরবঙ্গদেশরাজনীতিরাজ্য

রাজ্যপালের বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রী মোদির কাছে অভিযোগ জানালেন মুখ্যমন্ত্রী

এই বিজ্ঞাপনের পরে আরও খবর রয়েছে

ইউবিজি নিউজ ডেস্ক : পশ্চিমবঙ্গের (West Bengal) করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় যেভাবে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন তার জন্য তাঁকে ধন্যবাদ জানালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

তবে রাজ্যপালের নাম না করে তাঁকেই নিশানা করে মুখ্যমন্ত্রী (Mamata Banerjee) প্রধানমন্ত্রীর (Prime Minister Narendra Modi) কাছে অভিযোগ করেন যে, “সাংবিধানিক পদে থেকেই কিছু মানুষ” রাজ্য সরকারের সঙ্গে নিয়মিতভাবে অসহযোগিতা করে চলেছেন।

Ad

গত বছর জুলাই মাসে ক্ষমতায় আসার পর থেকেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারের সঙ্গে বারংবার মতবিরোধ তৈরি হয়েছে রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের।

তাই এবার সুযোগমতো রাজ্যপালের বিরুদ্ধেই প্রধানমন্ত্রীর কাছে নালিশ ঠুকে দিলেন মমতা। সোমবার আইসিএমআরের অত্যাধুনিক করোনা পরীক্ষা কেন্দ্রের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী। পশ্চিমবঙ্গ, মহারাষ্ট্র এবং উত্তরপ্রদেশে নতুন কোভিড -১৯ (COVID-19) পরীক্ষাকেন্দ্রের উদ্বোধন করার সময় মোদি বলেন, রাজ্য এবং কেন্দ্রীয় সরকার উভয়ই নির্বাচিত সংস্থা, তাই তাদের একসঙ্গে কাজ করা উচিত।

ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে হওয়া এই অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী মোদির সঙ্গে সামিল হন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষবর্ধন। আর ছিলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে এবং উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ।

সেই অনুষ্ঠানেই বক্তব্য রাখার সময় নাম না করে রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দেন তৃণমূল নেত্রী।

তিনি বলেন, “কোভিড সঙ্কট নিয়ে প্রধানমন্ত্রী যেভাবে মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে একাধিকবার আলোচনা করেছেন তার জন্যে আমি তাঁকে ধন্যবাদ জানাতে চাই।

 এখনও পর্যন্ত তাঁর থেকে এবিষয়ে কোনও অসহযোগিতা পাইনি। আমি এর জন্য ওঁকে ধন্যবাদ জানাতে চাই। তবে কিছু মানুষ সাংবিধানিক পদে থেকেও যেভাবে নিয়মিত রাজ্য সরকারেরর সঙ্গে অসহযোগিতা করছেন তা গ্রহণযোগ্য নয়।”

এদিকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যেভাবে অনুষ্ঠানের মাঝে রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়কে নিয়ে তাঁর অভিযোগ জানিয়েছেন সেপ্রসঙ্গে প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

তিনি বলেন, রাজ্যপাল রাজ্য সরকারের ভুলত্রুটি চিহ্নিত করে সঠিক কাজই করেছেন। “তৃণমূল সরকারের মন্ত্রীরা যেভাবে রাজ্যপালকে অপমান করেছেন তাও নজিরবিহীন”, একথাও বলেন তিনি।

আরও পড়ুন