Ad
রাজনীতি

জাভেদ আখতারকে ‘‘খেলা হবে” নিয়ে গান লিখতে আর্জি মমতার

এই বিজ্ঞাপনের পরে আরও খবর রয়েছে

ইউবিজি নিউজ ডেস্ক: বিধানসভা নির্বাচনে হুল্লোড় ফেলে দিয়েছিল তৃনমূলের ‘খেলা হবে’ স্লোগানটি।

‘ খেলা হবে ‘র জনপ্রিয়তা যাতে কোনোদিনও ম্লান না হয়ে যায় তাই বিশিষ্ট কবি জাভেদ আখতারকে সেই স্লোগান নিয়ে গান লেখার অনুরোধ করলেন বঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্য়োপাধ্যায়।

Ad

বিরোধী দলগুলি কে এক জোট করতে নিরলস চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন মমতা। দেখা করেছেন দিল্লীর মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল এবং কংগ্রেস প্রধান সোনিয়া গাঁধীর সঙ্গেও। এরই মাঝে, বলিউডে মোদী-বিরোধী বলে খ্যাত জাভেদ-শাবানা জুটি আসেন মমতা বন্দোপাধ্যায়ের সঙ্গে দেখা করতে।

বার্তালাপ শেষ করে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন তিনজনে। ‘খেলা হবে ‘ স্লোগানের কথা উঠতেই মমতা বন্দোপাধ্যায় জাভেদ আখতারকে আর্জি জানালেন এই স্লোগান ধরে একটি গান লেখার জন্য।

‘ দিদির ‘ থেকে এরকম অনুরোধ পেয়ে জাভেদ আখতার বলেন, ‘‘আমি মমতার কাছে কৃতজ্ঞ।’’

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এর নেতৃত্বের প্রশংসা করে তিনি বলেন যে, তাঁরই কারণে পশ্চিমবঙ্গে ‘পরিবর্তন’ এসেছে, এবং তিনি আশাবাদী ভারতবর্ষেও আগামী দিনে তাঁর হাত ধরে পরিবর্তন আসবে।

‘খেলা হবে’ স্লোগানটির জনপ্রিয়তা রাজ্যের গণ্ডি ছাড়িয়ে জাতীয় স্তরে পৌঁছে গিয়েছে। সেই ক্ষেত্রে একজন কবি হিসাবে আখতারের কি মনে করেন, এই স্লোগানটি ঘিরে জনতার উন্মাদনা কতটা? জাভেদ আখতার সাংবাদিকদের এই প্রশ্নের উত্তরে বলেন, ‘‘এটা আর নতুন করে বলে দিতে হবে না। সকলের মুখে মুখে ফিরছে এই স্লোগান। আমার উত্তর দেওয়ার বদলে আপনারা বুঝে নিন, কতটা জনপ্রিয় হয়েছে এটি।’’ এরপরেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জাভেদ আখতারকে অনুরোধটি করে বসেন– ‘‘খেলা হবে নিয়ে একটি গান লিখে দিন আপনি।’’
দিদির প্রস্তাবকে স্বাগত জানান খোদ শাবানা আজমিও।

বিরোধী জোটের মুখ কে হবেন সেটা জানতে চাওয়া হলে জাভেদ বলেন, ‘‘কে নেতৃত্ব দেবেন, সেটি পরের বিষয়। গুরুত্বপূর্ণ হল আমরা কেমন ভারত চাই। আমরা ভারতের কেমন ঐতিহ্য, কেমন স্বাধীনতা, কেমন গণতন্ত্র চাই। গণতন্ত্রকে যতটা ভাল করা যায়, ততটাই ভাল করতে হবে।’’

আরও পড়ুন