বাংলায় বিধানসভা নির্বাচনের জন্য ভিন রাজ্য থেকে কর্মী আনুক কমিশন! দাবি বঙ্গ বিজেপির

ইউবিজি নিউজ ডেস্ক : বাংলায় বিধানসভা নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য ইতিমধ্যে হাজির হয়েছে কেন্দ্রীয় বাহিনী। নির্বাচনের আগেই জেলায় জেলায় ঘুরে তাঁরা ভোট পূর্ববর্তী আবহ পর্যালোচনা করবেন। কিন্তু ভোটের আয়োজন নিয়ে বিজেপির দাবি মিটছে না এখনও। এদিন মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিকের কাছে ভোট সংক্রান্ত আরো এক গুচ্ছ দাবিদাওয়া পেশ করেছে ভারতীয় জনতা পার্টি।

রাজ্যের সঙ্গে চুক্তিভিত্তিক কর্মীরা যেন কোনোভাবেই ভোটের কাজে নিযুক্ত না হন, নির্বাচন কমিশনের কাছে এদিন এমনটাই দাবি জানিয়েছে গেরুয়া শিবির। সেই সঙ্গে স্পর্শকাতর বুথ গুলিতে কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন নিশ্চিত করার আর্জিও জানানো হয়েছে বলে খবর। সাধারণত ভোটের সময় বিভিন্ন সরকারি কর্মচারীদের দায়িত্ব দেওয়া হয় জায়গায় জায়গায় ভোট পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখার। নির্বাচনের কাজ পর্যালোচনা করে থাকেন সিভিক ভলান্টিয়াররাও। কিন্তু তাঁরা পক্ষপাতদুষ্ট হতে পারেন বলেই মনে করছে গেরুয়া নেতৃত্ব।

শুধু তাই নয়, এ রাজ্যে নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য ভিন রাজ্য থেকে নির্বাচনী আধিকারিক আনার পরামর্শও দিয়েছে বিজেপি। এদিন নির্বাচন কমিশনারের কাছে লেখা চিঠিতে গেরুয়া শিবিরের পক্ষ থেকে স্বপন দাশগুপ্ত ও শিশির বাজোরিয়া জানান, সিভিক ভলান্টিয়ার বা রাজ্য সরকারি চুক্তিভিত্তিক কর্মীদের ভোটের কাজে ব্যবহার করা উচিত নয়। যেহেতু এরা স্থায়ী কর্মী নয়, ফলে কর্তব্যরত অবস্থায় কোনো ভুল করলে এদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া সম্ভব নয়। রাজ্য সরকার যাতে কেন্দ্রীয় বাহিনীর অপব্যবহার করতে না পারে সেদিকেই নজর দিতে বলা হয়েছে কমিশনকে।

শিশির বাজোরিয়ার অভিযোগ, “আমাদের কাছে প্রমাণ আছে একাধিক জেলাতে সরকারি চুক্তিভিত্তিক কর্মীদের গ্রুপ ডি কর্মী হিসেবে দেখিয়ে কাজ হাসিলের চেষ্টা করছে রাজ্য। স্থায়ী কর্মচারী না হওয়ায় এরা জবাবদিহি করতে বাধ্য নন। ফলে এদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেওয়া যাবে না।” রাজ্যের হাইওয়ে গুলিতে কেন্দ্রীয় বাহিনীর রুট মার্চে কোনো কাজের কাজ হবে না বলেই মনে করছে গেরুয়া দল। তাঁদের দাবি অবিলম্বে স্পর্শকাতর এলাকা গুলিতে মোতায়েন করা হোক বাহিনী।