‘মহিলাদের শিক্ষা ও পরিবহণ সম্পূর্ণ বিনামূল্যে’ শীতলকুচিতে এসে উত্তরবঙ্গবাসীর জন্য প্রতিশ্রুতির বন্যা শাহের

শীতলকুচি, ২ এপ্রিলঃ নির্বাচনের দ্বিতীয় দফার পরের দিনই রাজ্যে হাজির হয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। এদিন উত্তরবঙ্গে কোচবিহারের শীতলকুচিতে নিজের প্রথম জনসভায় বক্তব্য রাখেন শাহ। সেখানে চতুর্থ দফায় ভোট রয়েছে ১০ এপ্রিল। তার আগে প্রতিশ্রুতির ফুলঝুড়ি ওড়ালেন গেরুয়া শিবিরের সেনাপতি। জানালেন, মহিলাদের শিক্ষা হবে সম্পূর্ণ বিনামূল্যে। পরিবহণও সম্পূর্ণ বিনামূল্যে হবে বলে আশ্বাস দেন তিনি। এছাড়া, মমতাকে আক্রমণ করে শাহ বলেন, “দিদি যাবেন আর উত্তরবঙ্গের আচ্ছে দিন আসবে।”

উত্তরবঙ্গবাসীকে আশ্বাস দিয়ে তিনি বলেন, “প্রতিবছর ২ হাজার কোটি টাকা উত্তরবঙ্গের উন্নয়নে দেওয়া হবে।নারায়ণী সেনার স্মৃতি রক্ষার্থে রাজবংশীদের নিয়ে নতুন ব্যাটেলিয়ন হবে।” বলেও প্রতিশ্রুতি দেন শাহ।

এছাড়া বিজেপি ক্ষমতায় এলে উত্তরবঙ্গে সব হিংসা বন্ধ হয়ে যাবে বলেও উত্তরবঙ্গবাসীকে আশ্বাস দেন অমিত শাহ। উত্তরবঙ্গে একটি চা-পার্ক তৈরির পরিকল্পনা হয়েছে বলেও জানান শাহ। পাশাপাশি তাঁর আশ্বাস, উত্তরবঙ্গের কোচবিহারে এইমস ধাঁচের হাসপাতাল তৈরি হবে।

মঞ্চের ওপর থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেও আক্রমণ করতে ছাড়েননি শাহ। তাঁর দাবি, মোদী শীতলকুচিতে রাস্তা বানানোর জন্য ২২ কোটি টাকা দিয়েছেন। কিন্তু সেই রাস্তা তৈরি হয়নি। কারণ এই রাস্তা তৈরি হোক দিদি চাননি। পাশাপাশি তিনি বলেন, “কাল প্রমাণ হয়ে গেছে নন্দীগ্রামে দিদি হারছেন। দিদি উত্তরবঙ্গের প্রতি সবসময় অন্যায় করেছেন” বলেও সরব হন অমিত শাহ।

বিদায়ী মুখ্যমন্ত্রীকে তীব্র আক্রমণ করে শাহ বলেন, ” দিদি শুধুই ভাইপোর কথা ভাবেন। দিদি ভাইপোকে মুখ্যমন্ত্রী বানানোর কথা ভাবেন।” অন্যদিকে বিজেপি শিবিরের সেনাপতির বক্তব্য, “প্রথম দুই দফার ভোটে বিজেপিই জিতছে।” মোট ৬০ টি আসনের মধ্যে ৫০ টি আসনে গেরুয়া শিবির জয়লাভ করবে বলে দাবি জানান অমিত শাহ। পাশাপাশি তিনি বলেন, “উত্তরবঙ্গ থেকে একটি আসন ও দিদির হাতে দেওয়া যাবে না।”