Ad
উত্তরবঙ্গ

বিজেপিকে রুখতে জোটের ঘরে সিধ কাটছে তৃনমুল

এই বিজ্ঞাপনের পরে আরও খবর রয়েছে

দিনহাটাঃ সিতাই বিধান সভায় গিতালদহ , ওকড়াবাড়ি এলাকা একদা কংগ্রেসের গড় ছিল। ২০১১ নির্বাচনে তৃনমূলের জোট সংগী হিসেবে কংগ্রেস জয়ী হয় এই আসনে। যদিও পঞ্চায়েত নির্বাচনে কংগ্রেসকে পরাস্ত করে তৃনমুলের আধিপত্ত শুরু হয়। ২০১৬ বিধানসভায় বাম কংগ্রেস জোটকে পরাস্ত করে জয়ী হয় তৃনমূল।

২০২১ নির্বাচনে বিজেপিকে পরাস্ত করতে কংগ্রেস নেতাদের নিজেদের দিকে টানছে তৃনমুল। রবিবার গিতালদহে প্রচারে এসে কংগ্রেস নেতাদের বাড়িতে যান তৃনমুল প্রার্থী জগদীশ বসুনীয়া। বিদায়ী বিধায়ককে পাশে পেয়ে পেয়ে আপ্লুত হয়ে পড়েন একাধিক কংগ্রেস নেতা। জগদীশ বসুনিয়াকে বাড়িতে পেয়ে আবেগে কেদে পড়েন দাপুটে কংগ্রেস নেতা লক্ষ্মী কালোয়ার। বিধায়কের পাশে থাকার আশ্বাস দেন তিনি।

Ad

(Election)। বিধায়কের সাথে ছিলেন দিনহাটা-১ ব্লক তৃনমুল কংগ্রেসের এস সি এস টি ওবিসি সেলের ব্লক সভাপতি পুলক চন্দ্র বর্মন , জেলা পরিষদের বন ও ভুমি কর্মাধক্ষ নুর আলোম হোসেন সহ অন্যান্য নেতৃত্ব।

সিতাই বিধান সভার তৃনমুল কংগ্রেস প্রার্থী জগদীশ বসুনীয়া বলেন, বাংলায় শান্তি ও সম্প্রীতি রাখতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাত শক্ত করতে হবে। জোট কে ভোট দেওয়া বিজেপিকে ভোট দেওয়ার নামান্তর। সেই বার্তা দিয়ে কংগ্রেসের ভালো মানুষদের পাশে চাইছি। অনেকেই সাড়া দিচ্ছেন। (Election)

কংগ্রেস নেতা লক্ষী কালোয়ার বলেন, দীর্ঘদিন ধরেই বাড়িতে বসে রয়েছি। কেউ খোঁজ রাখে না। এদিন বিধায়ক বাড়িতে এসে যে ভাবে সম্মান দিলেন তাতে আপ্লূত। গত বার তিনি বাড়িতে এসেছিলেন। উনাকে ধন্যবাদ জানালেও তৃনমূলকে ভোট দেই নি। তবে এবার বাড়িতে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেব। জগদীশ বাবু কে যাতে জেতান যায় সেজন্য শীঘ্রই প্রচারে নামবো। (Election)

লোকসভা নির্বাচনে সিতাই বিধান সভায় তৃনমুল কংগ্রেস এগিয়ে ছিল । তবে বাম কংগ্রেস সমর্থকদে অনেক ভোট বিজেপি পায়। বিধান সভায় যাতে এই ঘটনার পুনরাবৃত্তি না হয় সেজন্য জোটের ঘরে সিধ কাটছে তৃনমুল। জনপ্রিয় কংগ্রেস নেতাদের নিজেদের দিকে টানতে বাড়ি বাড়ি জাচ্ছেন স্বয়ং প্রার্থী।

গিতালদহ, কোনামুক্তা সহ একাধিক জায়গায় বসে যাওয়া কংগ্রেস নেতাদের বাড়ি গিয়েছেন জগদীশ বসুনিয়া। বিধায়ক কে বাড়িতে দেখে অনেকেই তাকে সমর্থনের বার্তা দিচ্ছেন। আবার অনেকেই তাঁর হয়ে প্রচারে নামার আশ্বাস দিচ্ছেন।

একদা কংগ্রেসের গড় এই এলাকায় প্রাক্তন কংগ্রেস নেতা কর্মীরা যেভাবে তৃনমুলের পাশে দাড়াচ্ছেন, তাতে উৎফুল্ল শাসক দল। এই এলাকাগুলি থেকে অনেকে বেশি ভোট লিড পাওয়ার আশায় রয়েছে তারা। (Election)

আরও পড়ুন