লক্ষ্মী এবং উর্মিলার সঙ্গে বেঙ্গল সাফারিতে রয়েছে উদ্ধার হওয়া হস্তীশাবক

ইউবিজি নিউজ ব্যুরো : মঙ্গলবার বিকেলে, টুকুরিয়াঝাড় রেঞ্জের উত্তমচাঁদ এলাকা থেকে একটি দলছুট বাচ্চা হাতিকে উদ্ধার করে বন দফতর। তাকে নিয়ে আসা হয় বেঙ্গল সাফারি পার্কে। বর্তমানে সেখানেই তাকে দেখভাল করছে বনকর্মীরা।

বনদফতর সূত্রে পাওয়া খবর অনুযায়ী, নাওয়া-খাওয়া ভুলে উদভ্রান্তের মতো ওই এলাকার জঙ্গলে ঘুরে বেড়াচ্ছিল বাচ্চা হাতিটি। ব্যাঙডুবি থেকে যে পূর্ণবয়স্ক হাতির দেহ উদ্ধার হয়েছিল, সেই হাতিটির শাবক হতে পারে এই শিশু হাতিটি বলে মনে করছে বন দপ্তর। যদিও এই দাবিকে এখনও নিশ্চিত করেনি বন দফতর।

এই বিষয়ে বেঙ্গল সাফারি পার্কের অধিকর্তা ধর্মদেও রাই বলেন, ‘‘হস্তি শাবটিকে চিকিৎসকরা দেখছেন। উদ্ধারের সময় টানা হেঁচড়ায় একটু দুর্বল হয়েছিল হস্তি শাবকটি। শুশ্রূষা চলছে হস্তি শাবকটির। যাতে সে দ্রুত পরিস্থিতির সঙ্গে খাপ খাইয়ে নিতে পারে, সেই জন্য সাফারি পার্কের অন্য দুটি হাতি, লক্ষ্মী এবং উর্মিলার সঙ্গে ছেড়ে রাখা হয়েছে তাকে।

প্রসঙ্গত হাতির মা মারা না গেলে, সাধারণত দলছুট হয় না হস্তিশাবক। একই এলাকা থেকে হাতির দেহ এবং বাচ্চা হাতিটি উদ্ধার হয়েছে বলে, হস্তি শাবকটি মৃত হাতিটির বাচ্চা কিনা, সেবিষয়ে খতিয়ে দেখছে বনকর্তারা।