তৃণমূল নেতা উদয়নের উপড়ে হামলার ঘটনায় পুরসভার তরফে বুল্ডোজার দিয়ে সাফ করে দেওয়া হল বিতর্কে উঠে আসা দিনহাটার ক্লাবঘর

দিনহাটা, ১২ জুনঃ দিনহাটার প্রাক্তন বিধায়ক তথা তৃণমূল নেতা উদয়ণ গুহর ওপর হামলার জের! বুল্ডোজার দিয়ে ভেঙে গুড়িয়ে দেওয়া হল বিতর্কে উঠে আসা ক্লাবঘর। অভিযোগ, ওই ক্লাবঘর থেকেই উদয়ন গুহর ওপর হামলা চালানো হয়। আজ, শনিবার সকালে দিনহাটা শহরের ৪ নম্বর ওয়ার্ডে থাকা ওই ক্লাবঘরটি দিনহাটা

পুরসভার তরফে ভেঙে দেয় গুড়িয়ে দেওয়া হয়। পুরসভার দাবি, বেআইনিভাবে নির্মাণ হয়েছিল ওই ক্লাবঘর। অসামাজিক কাজকর্ম হত সেখানে। ফলে মানুষ তিতিবিরক্ত হয়ে উঠেছিল।

এবিষয়ে দিনহাটা পুরসভার প্রশাসক উদয়ন গুহ বলেন, “হাই ড্রেনের উপর বেআইনিভাবে ওই ক্লাব নির্মাণ করা হয়েছিল। ক্লাব বিল্ডিং নির্মাণের কোনও বৈধ কাগজপত্র ছিল না। ক্লাবের জমি রেজিস্টেশন সহ সমস্ত কাগজপত্র দেখার জন্য সভাপতি সম্পাদকের খোঁজ করা হয়। কাউকে না পেয়ে ক্লাবের দরজায় নোটিশ ঝুলিয়ে তিন দিনের মধ্যে পুরসভায় এসে কাগজপত্র দেখাতে বলা হয়। কিন্তু কেউ না আসায় বাধ্য হয়ে পুরসভা এদিন ক্লাবটিকে ভেঙ্গে দেওয়া হয়েছে। তাছাড়া ওই ক্লাবে বিভিন্ন অসামাজিক কাজকর্ম হত বলে বাসিন্দারা অভিযোগ জানিয়ে ছিলেন। ক্লাব কর্তৃপক্ষকে একাধিকবার নোটিশ দিয়ে কোনও কাজ না হওয়ায় এদিন আইন অনুযায়ী ওই বেআইনি নির্মাণ ভেঙে ফেলা হয়েছে”।

উল্লেখ্য, গত ৬ মে দিনহাটা শহরের ওই ক্লাবের সামনেই তৃণমূল কংগ্রেসের প্রাক্তন বিধায়ক উদয়ন গুহের উপড়ে হামলার ঘটনা ঘটে। ওই হামলায় উদয়ন গুহের হাত ভেঙ্গে যায়। মারাত্মক ভাবে আহত হন তাঁর নিরাপত্তা রক্ষীরাও। ওই ঘটনার পর প্রথমে দিনহাটা মহকুমা হাসপাতালে পরে কোলকাতায় গিয়ে চিকিৎসা করান উদয়ন গুহ।

অভিযোগ, হামলার দিন ওই ক্লাবের ভেতর থেকেই বাঁশের লাঠি, কাঠের বাটাম ও লোহার রড বের করে নিয়ে আসা হয়। হামলায় অভিযুক্তদের অনেকেই ওই ক্লাবের সাথে যুক্ত বলে অভিযোগ রয়েছে। তাঁদের অনেককে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে। বাকিরা পলাতক রয়েছে। এদিকে চিকিৎসা করিয়ে সম্প্রতি দিনহাটায় ফিরে এসেছেন উদয়ন বাবু। তারপরেই এদিন ওই ক্লাবের ঘরটি ভেঙ্গে দেওয়া হয়।