মিডিয়াম রেঞ্জ থেকে গুলি, সামনে এল শীতলকুচির পোস্টমর্টেম রিপোর্ট

কোচবিহার, ২১ এপ্রিলঃ চতুর্থ দফার নির্বাচনে শীতলকুচিতে ৪ ব্যক্তির উপর কেন্দ্রীয় বাহিনীর গুলি চালানোর ঘটনা নিয়ে উত্তাল হয় রাজ্য রাজনীতি। সেই মামলা এখনও থিতিয়ে যায়নি। এই পরিস্থিতিতেই শীতলকুচির ঘটনায় মৃত চার ব্যক্তির ময়নাতদন্তের রিপোর্ট সামনে এল। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট বলছে, তাঁদের উপর মিডিয়াম রেঞ্জ থেকে গুলি চালিয়েছে CISF।

পশ্চিমবঙ্গে বিধানসভা নির্বাচনের চতুর্থ দফায় গত ১০ এপ্রিল কোচবিহারের শীতলকুচিতে ১২৬ নম্বর বুথে মৃত্যু হয় ৫ জনের। এরমধ্যে কেন্দ্রীয় বাহিনীর গুলিতে মৃত্যু হয় ৪ জনের। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট অনুযায়ী, মৃত ৪ জনেরই দেহের উপরের অংশে গুলির ক্ষত রয়েছে।

শীতলকুচির ঘটনার তদন্তভার নিয়েছে সিআইডি। গঠন করা হয়েছে স্পেশাল ইনভেস্টিগেশন টিম বা (SIT)। চতুর্থ দফার নির্বাচনে শীতলকুচিতে ঠিক কী ঘটেছিল, তা নিয়ে সিআইডি-র বিশেষ দল তদন্ত করছে। শীতলকুচির ঘটনায় ৫ মে-র মধ্যে সিআইডির কাছে রিপোর্ট তলব করেছে হাইকোর্ট।

শিলিগুড়িতে একটি সাংবাদিক বৈঠকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘটনাটিকে ‘জেনোসাইড’ হিসেবে বর্ণনা করেছিলেন। তৃণমূল নেতা ডেরেক ও ব্রায়ান বলেন, ঘটনাটি ‘ঠান্ডা মাথায় খুন’। অনেকে এমনও বলেছেন, পরিস্থিতি যদি হাতের বাইরে বেরিয়ে যায় হবে কেন্দ্রীয় বাহিনী শূন্যে গুলি চালাতে পারত, কিন্তু সরাসরি বুকে গুলি করা নিয়ে নিন্দায় সরব হয়েছেন অনেকে।