Ad
আলিপুরদুয়ারউত্তর দিনাজপুরউত্তরবঙ্গ

সাঁকরাইলে পুলিশকর্মীদের উপর বোমাবাজি ও গুলি চালানোর ঘটনায় ৬ জনকে গ্রেপ্তার করলো পুলিশ

এই বিজ্ঞাপনের পরে আরও খবর রয়েছে

ওয়েব ডেস্ক: ডেপুটি পুলিশ কমিশনার অজিত সিংকে লক্ষ্য করে গুলি চালানো ও বোমাবাজির ঘটনায় জড়িত সন্দেহে ৬ জনকে গ্রেপ্তার করলো পুলিশ। ঘটনার পর দীর্ঘক্ষণ পেরিয়ে গেলেও এখনও থমথমে এলাকা। হাওড়ার সাঁকরাইলের মানিকপুরে মোতায়েন রয়েছে বিশাল পুলিশ বাহিনী।

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার বিকালে হাওড়া জেলার সদর মহকুমার সাঁকরাইল থানার এলাকাই এনআরসি ও ক্যাব আইনের প্রতিবাদে বিক্ষোভ দেখিয়ে আন্দোলন শুরু হয়ে  পুলিশের সঙ্গে বিক্ষোভকারীদের সংঘর্ষ বাধে। সাঁকরাইলে মঙ্গলবার এনআরসি আর ক্যাব নিয়ে বিক্ষোভ মিছিল বার হলে বিক্ষোভাকারীরা টায়ারে জ্বালিয়ে পথ অবরোধ শুরু করে। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছালে তারা বিক্ষোভকারীদের বারংবার অবরোধ তুলে নিতে বলেন। কিন্তু কোন কিছুতেই কাজ হয়নি। পরিস্থিতি ক্রমশই ঘোরালো হয়ে উঠতে থাকে।

Ad

যত রাত বাড়ে ততই বাড়তে থাকে উত্তেজনা। এরপরেই ঘটনাস্থলে বিশাল বাহিনী নিয়ে উপস্থিত হন হাওড়া পুলিশ কমিশনারেটের ডিসি অজিত সিং। সেই সময়েই পুলিশকে লক্ষ্য করে বোমা ছোঁড়া শুরু হয়। তাতে অজিত সিং ৩ জন পুলিশ কর্মী আহত হন। এরপর রাতেই পুলিশের ওপর হামলার ঘটনায় ৬ জনকে গ্রেফতার করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে ভারতীয় দন্ডবিধির ১৪৭, ১৪৮ ও ১৪৯ নম্বর ধারায় মামলা দয়ের করা হয়েছে।

রাতেই অভিযুক্তদের সন্ধানে শুরু হয় তদন্ত। বেশ কয়েকজনকে আটক করে পুলিশ। তাদের মধ্যে থেকে গ্রেপ্তার করা হয় ৬ জনকে। বুধবারই তাঁদের আদালতে তোলা হয়। প্রসঙ্গত, CAA ও NRC ইস্যুতে বেশ কিছুদিন ধরেই উত্তপ্ত রাজ্য। জেলায় জেলায় চলছে বিক্ষোভ। আগুন জ্বালিয়ে দেওয়া হয়েছে একাধিক ট্রেন, বাসে। তবে মঙ্গলবার সকাল থেকেই ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হতে শুরু করেছিল পরিস্থিতি। তারই মধ্যেই মঙ্গলবার রাতেই নাগরিকত্ব আইন ইস্যুতে রক্তাক্ত হয় সাঁকরাইল।

আরও পড়ুন