মোদি-মমতার জনসভাকে ঘিরে উত্তপ্ত কোচবিহার

মাথাভাঙ্গাঃ বিধানসভা নির্বাচনে আজ মাথাভাঙ্গা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী গিরীন্দ্রনাথ বর্মনের সমর্থনে লতাপাতা গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার গুমানীর জনসভায় বক্তব্য রাখছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে এদিন সকালবেলায় বিজেপির কর্মী-সমর্থকেরা যখন কোচবিহার রাসমেলার ময়দানের উদ্দেশ্যে রওনা দেয় তখন বিজেপির কিছু গাড়ি ভাঙচুর করা হয় বলে বিজেপির অভিযোগ।

অপরদিকে লতাপাতা গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় মাথাভাঙ্গা থেকে বেশকিছু তৃণমূল কর্মী সমর্থক মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জনসভার উদ্দেশ্যে রওনা দেওয়ার সময় মাথাভাঙার পঞ্চানন সেতুসংলগ্ন কালিবাড়ি এলাকায় তৃণমূলের কয়েকটি গাড়ি ভাঙচুর করা হয় বলে তৃণমূলের অভিযোগ।

তৃণমূলের যুবনেতা প্রসেনজিৎ সাহা বলেন, ‘আমরা যখন গাড়ি নিয়ে মমতা ব্যানার্জীর সভায় যাচ্ছিলাম তখন কালীবাড়ি এলাকায় বিজেপির দুষ্কৃতকারীরা আমাদের গাড়ি ভাঙচুর করে এতে কয়েকজন আহত হয় তাদেরকে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। সমস্তটাই বিজেপি এই কাজ করেছে।’ তবে তাদের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ অস্বীকার করেছে বিজেপি।

বিজেপি কোচবিহার জেলা কনভেনার অভিজিৎ বর্মন বলেন, ‘সুখটা বাড়িতে আমাদের বিজেপির প্রচুর গাড়ি ভাঙচুর করেছে তৃণমূল কংগ্রেসের হার্মাদ বাহিনি। এতে বেশ কয়েকজন জখম হয়েছে। আমাদের বিরুদ্ধে যে তৃণমূল অভিযোগ করেছে আমরা কালীবাড়িতে তাদের গাড়ি ভাঙচুর করেছি তা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন অভিযোগ। বিজেপি সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে এবং শান্তির স্বপক্ষে।’

উল্লেখ্য, একে অপরের উপর দোষারোপ এর পালায় পারদ চড়েছে মাথাভাঙ্গায় এবং চাঞ্চল্যকর পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে মাথাভাঙা শহরে এবং শহরের সংলগ্ন এলাকায়। এই ঘটনার খবর পেয়ে মাথাভাঙ্গা থানার বিশাল পুলিশবাহিনী পঞ্চানন মোড় বেলতলা এবং কালীবাড়ি এবং পঞ্চানন সেতু এলাকায় ছুটে যায়। বর্তমানে ওই এলাকায় পুলিশ টহল গাড়ি চলছে।