দিনহাটা বোর্ডিং পাড়া মাঠে রাত দুটো পর্যন্ত চললো মাইক, উদাসীন প্রশাসন

ইউবিজি নিউজ, দিনহাটা : যেখানে নির্দেশ রয়েছে রাত্রি দশটার পরে কোন ভাবে ডিজে অথবা মাইক বাজানো যাবে না। সেখানে সোমবার রাত ২ টা পর্যন্ত বোর্ডিং পাড়ায় এক অন্য চিত্র দেখা গেল। এবছর দিনহাটার বোর্ডিং পাড়া মাঠে দুর্গাপূজার মণ্ডপ তৈরি করার সময় দিনহাটার একটি নামকরা স্কুল পূজা মন্ডপ তৈরি ক্ষেত্রে বাধা প্রদান করেছিল।

অথচ দেখা গেল বোর্ডিং পাড়া মাঠ সংলগ্ন এলাকার কোন এক বাড়ির সামাজিক অনুষ্ঠানে বোর্ডিং পাড়া মাঠে প্যান্ডেল করে অনুষ্ঠান করা হয়েছে সেই বেলায় স্কুল কর্তৃপক্ষর পদক্ষেপ দেখা গেল না। সেই কথা না হয় দূরে রাখলাম কিন্তু যেখানে পুলিশ ও প্রশাসনের তরফ থেকে কড়াভাবে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে রাত্রি দশটার পরে কোনোভাবেই মাইক কিংবা ডিজে বাজানো যাবে না কার্যত সেই নির্দেশিকা কে উপেক্ষা করেই রাত ২:১০ মিনিট কিংবা তার আশপাশ সময় পর্যন্ত তারস্বরে বাজলো মাইক।

বরাবরই বোর্ডিং পাড়া ঐতিহ্য বহন করে এসেছে দিনহাটার। যেখানে দুর্গাপূজার সময় রাত দশটা বাজলেই বোর্ডিং পাড়া চত্বরে থাকা সমস্ত মাইক বন্ধ করে দেওয়া হয় সেই জায়গায় দাঁড়িয়ে বোডিং মাঠে একটি সামাজিক অনুষ্ঠান করা হচ্ছে অথচ কোনভাবেই সরকারি নির্দেশ মানা হচ্ছে না। করোনা বিধিনিষেধের কথা তো দূরে সরিয়ে দিলাম। কিন্তু তারস্বরে মাইক বাজানোয় কি উচিত এত রাতে।

তার থেকেও বড় কথা যেখানে পুজো কমিটিকে পুজো মণ্ডপ তৈরি ক্ষেত্রে বাধা প্রদান করা হয়েছিল সেখানে সামাজিক অনুষ্ঠানের প্যান্ডেল তৈরি করার সময় কোন রকম বাধা প্রদান বা কিছু করা হলো না কেন সেই প্রশ্ন আমি ছুঁড়ে দিলাম সংশ্লিষ্ট ওই স্কুল কর্তৃপক্ষকে। বোর্ডিং পাড়া এলাকায় অনেক বয়স্ক মানুষ রয়েছেন যারা অসুস্থ হয়ে বিছানায় পড়ে রয়েছেন তাদের কথা চিন্তা ভাবনা না করেই তারস্বরে মাইক বাজানোয় হল।