২০২১ এর বিধানসভায় জিততে পুরনো রীতি মেনে আটিয়া কলা, দই, চিরে-মুরি খেয়ে কোচবিহার নাটাবাড়ি এলাকায় প্রচার শুরু করলেন উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন মন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ

কোচবিহার, ২ মার্চ : বয়স জানো কোনোভাবেই হারাতে পারে না তাকে, সদা সর্বদা মানুষের পাশে দেখা যায় যে কোচবিহারের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ সংগঠক তথা উত্তরবঙ্গের তৃণমূল কংগ্রেসের মুখ রবীন্দ্রনাথ ঘোষ কে।

মঙ্গলবার সেই চিরাচরিত অভ্যাসে নিজের বিধানসভা কেন্দ্র নাটাবাড়ি 1 নম্বর অঞ্চলের পানিশালা এলাকায় দেখা গেল তাকে। সকালের প্রাতরাশ সাড়ছেন তিনি। রয়েছে আটিয়া কলা, চিড়া দই। অন্যতম পছন্দের খাবার রবীন্দ্রনাথ ঘোষের।

তিনি বলেন, নির্বাচনী প্রচার চলবে দিনরাত এক করে। মানুষের কাছে পৌঁছোতে হবে, তাই শরীরের খেয়াল রাখা সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ।শরীরের খেয়াল রাখার জন্যই পুরনো ছন্দে ফিরে আসার চেষ্টা করছি। সকাল হলেই খাদ্য সারাদিন শরীর-মন চাঙ্গা রাখবে। শুধু নিজে নয় জেলায় প্রচারে থাকা সমস্ত নেতাকর্মীদের এই ধরনের খাবার খাওয়ার টোটকা দিলেন তিনি।

এদিন এলাকায় ছোট্ট খুলি বৈঠকের মাধ্যমে শুরু হলো তার প্রচার। নাটাবাড়ি মানেই রবীন্দ্রনাথ ঘোষ, আর রবীন্দ্রনাথ ঘোষ মানেই নাটাবাড়ি। প্রার্থী ঘোষণা হওয়ার আগেই রবীন্দ্রনাথ ঘোষের এই ভূমিকা আরো একবার এই কথার সত্যতা প্রমাণ করে দিল।

যদিও বা বিজেপির তরফ থেকে কটাক্ষ করে জেলা সহ-সভাপতি সঞ্জয় চক্রবর্তী বলেছেন, উনি অসুস্থ মানুষ খাওয়া দাওয়ার প্রতি যত্নশীল হওয়া প্রয়োজন। আর আটিয়া কলা চিড়া দই কোচবিহারের অন্যতম ঐতিহ্যপূর্ণ খাবার।