পর্ন ভিডিও দিয়ে ব্ল্যাকমেইলের শিকার হলেন দিনহাটার বিধায়ক উদয়ন গুহ

ইউবিজি নিউজ, দিনহাটা : পর্ন ভিডিও দিয়ে ব্ল্যাকমেইলের শিকার হলেন দিনহাটার বিধায়ক উদয়ন গুহ। শনিবার দিনহাটায় একটি সাংবাদিক বৈঠক করে তিনি জানান বেশ কিছুদিন থেকেই একটি ভুয়া অ্যাকাউন্ট থেকে তাকে মেসেজ এবং হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে কল করা হচ্ছে। সেখানে তার একটি পর্ন ভিডিও দিয়ে সেকারিটি পর্ন ভিডিও দিয়ে লক্ষাধিক টাকা দাবি করা হচ্ছে। ভিডিওটি ভাইরাল করে দেওয়ার দাবি জানায় তারা।

বিষয়টি নিয়ে রীতিমতো শোরগোল পড়ে গেছে দিনহাটা তথা জেলা শহর জুড়ে। ইতিমধ্যেই দিনহাটা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন বিধায়ক। তিনি বলেন ভিডিওটি যেন কেউ শেয়ার না করে। ফাঁসানোর চেষ্টা চলছে। কেউ যদি ভিডিওটি শেয়ার করে তার বিরুদ্ধেও তিনি পুলিশে অভিযোগ করবেন। প্রসঙ্গত কিছুদিন আগেই জেলা পুলিশ সুপার একটি সাংবাদিক বৈঠক করে পর্ন ভিডিও থেকে সাবধান থাকার একটি বার্তা দেয়। এরপরই সেই পর্ন সাইটে পর্ন ভিডিওর শিকার হলেন দিনহাটার বিধায়ক।

করোনা পরিস্তিতির সুযোগকে কাজে লাগিয়ে সক্রিয় হয়ে উঠেছে সাইবার ক্রাইমকারিরা। করোনা পরিস্থিতি সময়ে মানুষের মধ্যে ব্যবহার বেড়েছে মোবাইলের। আর এই সুযোগকেই হাতিয়ার করেছে সাইবার ক্রাইম কারিরা।

ইতিমধ্যেই কোচবিহারে বিগত কয়েক দিন থেকে এক অত্যাধুনিক পদ্ধতি ব্যবহার করে মানুষকে ব্ল্যাকমেল করে বেশ টাকা আদায় করছেন তারা। কোচবিহার জেলায় তিন জনের সাথে এই ঘটনা ঘটে গিয়েছে। ইতি মধ্যেই ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে জেলা পুলিশ।

পুলিশের প্রাথমিক তদন্তে উঠে এসেছে চাঞ্চল্য তথ্য, বাইরের রাজ্য পাঞ্জাব, হরিয়ানা ও উত্তরপ্রদেশ থেকে হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে ভিডিও কল করা হচ্ছে, আর সেই ব্যাক্তি যখন সেই ভিডিও কল রিসিভ করে ভিডিও কলে কথা বলছে, সেই কথা বলা অল্প কিছুক্ষণের ক্লিপস সেই অসাধু ব্যাক্তিরা উন্নত প্রযুক্তির সাহায্যে ‘ব্লু ফিল্মের ক্লিপ’ বানিয়ে পরবর্তীতে সেই ব্যক্তিকে ‘ব্লু ফিল্মের ক্লিপ’ পাঠানো হচ্ছে এবং তার কাছে বেশ বড়সড় মূল্যের টাকা চেয়ে বসছে।

জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার লাল্টু হালদার এই বিষয়ে জেলাবাসীকে সতর্ক করে বলেন, দিন দিন সাইবার ক্রাইমদের প্যাটার্ন ক্রমশই বদলে যাচ্ছে, ধরণ পাল্টাচ্ছে। এখন যে পদ্ধতি দেখা যাচ্ছে তা অত্যন্ত উদ্বেগের। অনেক জায়গাতেই এরকম ঘটনা ঘটেছে। তার মধ্যে কোচবিহারেও হয়েছে। আমরা ইতিমধ্যেই ঘটনার তদন্ত শুরু করে দিয়েছি।

তিনি আরও বলেন, সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারের ক্ষেত্রে আরো সচেতন হতে হবে। অচেনা নাম্বার থেকে আশা ভিডিও কল রিসিভ করা উচিত নয় বলে জানান তিনি।