দিনহাটার বিধায়ক উদয়ন গুহের ফেসবুক পোস্ট ঘিরে বিতর্ক রাজনৈতিক মহলে

ইউবিজি নিউজ, দিনহাটা : দিনহাটার তৃণমূল বিধায়ক উদয়ন গুহের ফেসবুক ওয়ালে একটি পোস্টকে ঘিরে সরগরম হয়ে উঠেছে দিনহাটার রাজনৈতিক মহল। প্রশ্ন উঠেছে, তবে কি উদয়ন গুহ বেসুরো। যদিও উদয়ন গুহ নিজেই বলেছেন, আমি কিন্তু কোন ভাবেই বেসুরো নই।

উদয়ন বাবু লিখেছেন, ”গতকাল রাজ্য স্তরের নেতা সাংগঠনিক আলোচনার জন্য দিনহাটা এসেছিলেন, বিধায়ক, তিন ব্লক সভাপতি, শহর নেতৃত্বের বড় অংশ, ওয়ার্ড সভাপতিরা কেউ জানে না। কেমন সাংগঠনিক আলোচনা??24th এবং আজ গো- নয়ারহাট অঞ্চলে বঙ্গধ্বনী যাত্রা পালন করতে গিয়ে যে তিক্ত অভিজ্ঞতা হল সেটাও তুলে ধরলাম। রাজ্য নেতারা খুব ব্যস্ত বলে ফেসবুকে তুলে ধরলাম। আপাতত আমার কর্মসূচি স্থগিত রাখলাম। আশা করি সমস্যার সমাধান হবে। আমি কিন্তু কোনভাবেই বেসুরো নই।”

এদিনের এই পোষ্ট সম্পর্কে বিধায়ক উদয়ন গুহ বলেন, বঙ্গধ্বনী যাত্রায় যে অভিজ্ঞতা হয়েছে তা ফেসবুকে তুলে ধরেছি রাজ্য নেতাদের উদ্দেশ্যে। আশা করি সমস্যার সমাধান হবে। কিন্তু যতক্ষণ সমস্যা না মিটবে ততক্ষণ কর্মসূচি স্থগিত থাকবে।

উল্লেখ্য, শুক্রবার উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন মন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ দিনহাটায় আসেন। তিনি দিনহাটা অলোক নন্দী ভবন তথা দলীয় কার্যালয়ে কর্মীদের সঙ্গে বড়দিনের শুভেচ্ছা বিনিময় করেন।

পাশাপাশি সাংগঠনিক বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন। এরই পরিপ্রেক্ষিতে বিধায়ক উদয়নবাবুর ফেসবুকে এই পোস্ট বলে রাজনৈতিক মহল মনে করেন। যদিও টেলিফোনে মন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ এর সঙ্গে যোগাযোগ করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

উদয়নবাবু যতই ‘বেসুরো নই’ বলে নিজেকে উল্লেখ করেছেন, কিন্তু রাজনৈতিক মহল মনে করছেন, হয়তো তিনি বেসুরো পথেই হাঁটছেন।

উদয়ন গুহের ফেসবুকে পোস্ট সম্পর্কে বলতে গিয়ে গোবরাছড়া- নয়ারহাট গ্রাম পঞ্চায়েতের তৃণমূল প্রধান মমতাজ বেগম বলেন, উদয়ন গুহের পায়ের তলা থেকে মাটি সরে গিয়েছে। এদিন যাকে দিয়ে অভিযোগ করানো হয়েছে, তাকে টাকা পয়সা দিয়ে তৃণমূলকে কালিমালিপ্ত করার একটা চেষ্টা হচ্ছে।