Ad
উত্তরবঙ্গ

ফের উত্তরবঙ্গে অতি ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা

উত্তরবঙ্গে এই বৃষ্টির ফলে জায়গায় ধস নামার সম্ভাবনা বাড়তে পারে। নদীতে জলস্ফীতি দেখা দিতে পারে।

এই বিজ্ঞাপনের পরে আরও খবর রয়েছে

ইউবিজি নিউজ ডেস্ক : চলতি মরশুমে অতি বৃষ্টির কবলে পড়েছে দক্ষিণবঙ্গ। বর্ষার এমন দাপট শেষ বার ২০০৭ সালে দেখা গিয়েছিল বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। অন্যদিকে, উত্তরবঙ্গে সে ভাবে ভারী বৃষ্টি হচ্ছেই না, যার ফলে সেখানে বৃষ্টির ঘাটতি ক্রমশ বাড়ছে। তবে এ বার অতি ভারী বৃষ্টির কবলে পড়তে চলেছে উত্তরবঙ্গ। কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গও নতুন করে ভারী বৃষ্টির কবলে পড়তে পারে।

গত কয়েকদিন ধরে কলকাতায় বিক্ষিপ্ত ভাবে ভারী বৃষ্টি হলেও তার বিস্তৃতি খুব একটা ছিল না। সকালের দিকে কয়েক ঘণ্টার বৃষ্টির পরেই তা থেমে যাচ্ছিল। বেরিয়ে পড়েছিল রোদ। সোমবার অবশ্য বৃষ্টিই হয়নি। বেসরকারি আবহাওয়া সংস্থা ওয়েদার আল্টিমা জানাচ্ছে মঙ্গলবার থেকে ফের বৃষ্টি বাড়তে পারে দক্ষিনবঙ্গে। যত দিন এগোবে, তত ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা বাড়বে।

Ad

সোমবার থেকেই অতি ভারী বৃষ্টি শুরু হয়ে যেতে পারে উত্তরবঙ্গে। এ দিন ডুয়ার্সের সমতলে বৃষ্টি অনেকটাই বেশি হওয়ার সম্ভাবনা হয়েছে। তবে মঙ্গলবার থেকে দার্জিলিং, কালিম্পংয়ের মতো পাহাড়ি অঞ্চলেও তীব্র বৃষ্টি শুরু হয়ে যেতে পারে।

উত্তরবঙ্গে এই বৃষ্টির ফলে জায়গায় ধস নামার সম্ভাবনা বাড়তে পারে। নদীতে জলস্ফীতি দেখা দিতে পারে। এর ফলে ডুয়ার্সে হড়পা বানের আশঙ্কা করা হচ্ছে।

জানা গিয়েছে, এই মুহূর্তে মৌসুমি অক্ষরেখা উত্তরবঙ্গের ওপরে দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এই কারণেই উত্তরবঙ্গে বৃষ্টির দাপট ক্রমশ বাড়বে এখন। আগামী বেশ কয়েকদিন অক্ষরেখাটি উত্তরবঙ্গেই থাকবে। ফলে এই গোটা সপ্তাহটাই উত্তরবঙ্গে অতি ভারী বৃষ্টি হতে পারে।

উলটো ছবি উত্তরে। সেখানে এখনও পর্যন্ত বৃষ্টির ঘাটতি বেড়ে হয়েছে ১৫ শতাংশ। দার্জিলিং এবং কোচবিহার জেলা বাদে সর্বত্রই বৃষ্টি হয়েছে স্বাভাবিকের থেকে ৮০ শতাংশেরও কম। তবে আগামী কয়েকদিনের পূর্বাভাস অনুযায়ী এই ঘাটতি উত্তরবঙ্গ কমিয়ে ফেলতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন