৫৭ হাজারের পিছিয়ে থাকা কালিয়াগঞ্জে জয় ছিনিয়ে নিল তৃণমূল

নিজস্ব সংবাদদাতা, কালিয়াগঞ্জ : গত লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূল কে বড়সড় ধাক্কা দিয়েছিল বিজেপি। তৃণমূলের দখলে থাকা একাধিক কেন্দ্রে জয় পেয়েছিল বিজেপি। উত্তর দিনাজপুর জেলার কালিয়াগঞ্জ বিধানসভা কেন্দ্রে গত লোকসভা ভোটের নিরিখে বিজেপি প্রায় ৫৭ হাজার ভোটে এগিয়ে ছিল। সেই কেন্দ্রে এবার উল্টোপুরাণ। কুপোকাত বিজেপি প্রার্থী। জয় ছিনিয়ে নিল রাজ্যের শাসক শিবির।
কালিয়াগঞ্জ বিধানসভা উপনির্বাচনে তৃনমূল কংগ্রেস ৫৭ হাজার ভোটে পিছিয়ে থাকা লড়াই শেষ করল ২৩০৪ ভোটে জয়লাভ দিয়ে। বিজেপি প্রার্থী কমল চন্দ্র সরকার কে পরাজিত করে জয়ী হলেন তৃনমূল কংগ্রেস প্রার্থী তপন দেব সিংহ। আনন্দ উল্লাসে মেতে উঠল হাজার হাজার তৃনমূল কংগ্রেস কর্মী সমর্থকেরা। সবুজ আবির উড়ল কালিয়াগঞ্জ বিধানসভা এলাকার প্রতিটি অঞ্চলে। জয়ী তৃনমূল কংগ্রেস প্রার্থী তপন দেব সিংহ এই জয় রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়কে উৎসর্গ করেছেন। মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে আগামী দিনে কালিয়াগঞ্জ বিধানসভা এলাকায় উন্নয়নের বার্তা দিলেন তপন দেব সিংহ।

কালিয়াগঞ্জ বিধানসভা কেন্দ্র থেকে বিগত লোকসভা ভোটে বিজেপি ৫৬৭০২ ভোটে লিড পেয়েছিল। স্বাভাবিকভাবেই কালিয়াগঞ্জ বিধানসভা উপনির্বাচনে সহজেই জয় পাবে বিজেপি এটাই প্রত্যাশিত ছিল গেরুয়া শিবিরের। তবুও জয় ১০০ শতাংশ নিশ্চিত করতে ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব সহ রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ, রাহুল সিনহা, লকেট চট্টোপাধ্যায়, মুকুল রায় কালিয়াগঞ্জের মাটি কামড়ে পড়েছিলেন। কিন্তু কালিয়াগঞ্জের মানুষ রাজ্যের সার্বিক উন্নয়নের শরিক হতে তৃনমূল কংগ্রেসকেই বেছে নিয়েছেন। আস্থা রেখেছেন তৃনমূল কংগ্রেস এবং রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর উপরে। মানুষ সার্বিক উন্নয়ন পক্ষে রায় দিয়েছেন ও এনআরসির কারনে প্রত্যাখ্যান করেছে বিজেপিকে এমনটাই জানালেন জেলা তৃনমূল কংগ্রেস কর্মীরা। সমস্ত তৃনমূল নেতা কর্মীদের মিলিত প্রয়াস এবং কালিয়াগঞ্জ বিধানসভা এলাকার মানুষের তৃনমূল কংগ্রেসের প্রতি আস্থাই এই জয় এনে দিয়েছে।