Ad
নিউজ

মদ্যপানের প্রতিবাদ করায় ঘুমন্ত অবস্থায় স্বামীর পুরুষাঙ্গ কেটে দিল স্ত্রী!

এই বিজ্ঞাপনের পরে আরও খবর রয়েছে

ইউবিজি নিউজ ডেস্ক : স্বামীর মদ্যপান নিয়ে অনেক সংসারেই অশান্তির আগুন লাগে। কিন্তু দাম্পত্য কলহের কারণ স্ত্রীর মদ্যপান! শুধু তাই নয়, সেই মদ্যপানের প্রতিবাদ করায় স্বামীর পুরুষাঙ্গ কেটে দিল স্ত্রী! হ্যাঁ, শুনতে অবাক লাগলেও সম্প্রতি এমনই ঘটনা ঘটেছিল দক্ষিণ দিনাজপুরে (Dakshin Dinajpur)।

জানা গিয়েছে, স্ত্রীর মদ্যপানের প্রতিবাদ করেছিলেন স্বামী। রাগের বশে ঘুমন্ত স্বামীর পুরুষাঙ্গ কাটার অভিযোগ উঠল স্ত্রীর বিরুদ্ধে। দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার কুমারগঞ্জ থানার মোহনা গ্রাম পঞ্চায়েতের গোবিন্দপুর গ্রামের ঘটনায় ইতিমধ্যে তীব্র শোরগোল পড়ে গিয়েছে। জানা গিয়েছে, আক্রান্তর নাম লোকনাথ মার্ডি। আর অভিযুক্ত মহিলার নাম রিবিকা হাঁসদা।

Ad

ঘটনার সূত্রপাত গত দশমীর রাতে। ওই রাতে স্বামীর কাছ থেকে টাকা নিয়েছিল স্ত্রী। কিন্ত সেই টাকা দিয়ে ওই রাতেই মদ্যপান করে ফেরে স্ত্রী। এরপরই শুরু হয় চরম অশান্তি। রাতে স্বামী ঘুমিয়ে পরতেই ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাঁর পুরুষাঙ্গ কেটে দেয় বলে অভিযোগ ওই মহিলার বিরুদ্ধে। চরম যন্ত্রনায় লোকনাথ চিৎকার শুরু করেন।

এরপরেই এলাকা ও পরিবারের লোকেরা এসে তাঁকে উদ্ধার করে বালুরঘাট ও পরে শিলিগুড়ি নিয়ে যায়। বর্তমানে সেখানেই তাঁর চিকিৎসা চলছে। লোকনাথের বাবা লক্ষণ মার্ডি বলেন, ”ছেলের পুরুষাঙ্গ কাটায় আমি বউমার বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছি থানায়। এরপরেই রিবিকা থানায় আত্মসমর্পণ করে। তাঁকে বৃহস্পতিবার বালুরঘাট আদালতে তোলা হয়েছে। তাঁর শাস্তির দাবি জানাচ্ছি আমরা।” এদিকে, ইতিমধ্যে ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছে কুমারগঞ্জ থানার পুলিশ। এদিকে, এই ঘটনায় গোটা এলাকায় তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। খবরটি জানতে পেরে হতবাকও হয়েছেন অনেকে।

আরও পড়ুন