ভ্যাকসিনের অভাবে শুরু হল না রাজ্যে ১৮ ঊর্ধ্বদের টিকাকরণ প্রক্রিয়া

কলকাতা , ১ মেঃ শুরুতেই ধাক্কা। ভ্যাকসিনের অভাবে শুরু হল না ১৮ ঊর্ধ্বদের টিকাকরণ। এমনকি রাজ্য জানিয়েছিল ৫ তারিখ থেকে টিকাকরণ শুরু করবে তারা। তবে তা নিয়েও অনিশ্চয়তা রয়েছে। পর্যাপ্ত ভ্যাকসিন না থাকায় টিকাকরণ শুরু করতে পারবে না তারা বলে জানিয়েছে রাজ্যের স্বাস্থ্য দপ্তর।

এর আগে রাজ্য ৪৫ ঊর্ধ্ব ব্যক্তিদের জন্য ১ কোটি ভ্যাকসিন চেয়েছিল রাজ্য। কিন্তু ১৮ ঊর্ধ্বদের টিকাকরণ করাতে হলে রাজ্যে এই মুহূর্তে ৪ কোটি ডোজ প্রয়োজন।

অন্যদিকে রাজ্যের স্বাস্থ্য দপ্তর সূত্রে খবর, বাগবাজারের সেন্ট্রাল স্টোরে মাত্র ৫৫ হাজার টিকা পড়ে রয়েছে। যার ফলে ১৮ ঊর্ধ্বদের টিকাকরণ তো দূর, ৪৫-‌এর বেশি বয়সী মানুষকে টিকা দেওয়া যাবে কিনা তা নিয়েও অনিশ্চয়তার সৃষ্টি হয়েছে। রাজ্যের তরফে জানানো হয়েছে, ভ্যাকসিন এলে তারপর বিজ্ঞপ্তি দিয়ে শুরু করা হবে টিকাকরণ।

এই নিয়ে ভাইরোলজিস্ট সুমন পোদ্দার বলেন, হঠাৎ করে চাহিদা বেড়ে যাওয়ায় জোগানে আকাল পড়েছে। আগে ডেকে ডেকে মানুষকে দিতে হত টিকা কিন্তু এখন টিকা নেওয়ার জন্য লাইনে দাঁড়াচ্ছেন তারা। যার ফলে সেখান থেকেও ছড়াতে পারে করোনা সংক্রমণ।

দুই প্রস্তুতকারক সংস্থার হাতেও এত বিপুল পরিমাণে উৎপাদন করার ক্ষমতা নেই। যদিও তা বাড়ানোর উদ্দেশ্যে দেশের বাইরেও উৎপাদন করার পরিকল্পনা করছে সেরাম কর্তৃপক্ষ। বস্তুত, গত ২৮ এপ্রিল ১৮ ঊর্ধ্বদের করোনার ভ্যাকসিনের জন্য কো-‌উইন পোর্টাল খুলে দেয় কেন্দ্র। রেজিস্ট্রশন করেন বহু মানুষ। তবে পর্যাপ্ত ভ্যাকসিন না থাকায় বেশিরভাগ মানুষই ভ্যাকসিন নেওয়ার কোনও নির্দিষ্ট দিন পাননি।

তবে এ রাজ্য ছাড়াও কর্ণাটক, রাজস্থান, তামিলনাড়ু এবং অন্যান্য রাজ্যেও ১৮ ঊর্ধ্বদের ভ্যাকসিন চালু করা সম্ভব হয়নি। তবে দিল্লি, মহারাষ্ট্রের কয়েকটি বেসরকারি হাসপাতালে পুরনো মজুত করা ভ্যাকসিন দিয়ে শুরু হয়েছে ১৮ ঊর্ধ্বদের টিকাকরণ। টিকাকরণ শুরু হয়েছে গুজরাট ও উত্তরপ্রদেশের মোট ১৭ টি জেলায়।