Ad
উত্তরবঙ্গজলপাইগুড়ি

আজ থেকে চালু হচ্ছে এনজেপি ও দার্জিলিংয়ের মধ্যে টয়ট্রেন পরিষেবা

এই বিজ্ঞাপনের পরে আরও খবর রয়েছে

ইউবিজি নিউজ ব্যুরো : চালু হচ্ছে এনজেপি ও দার্জিলিংয়ের মধ্যে টয়ট্রেন পরিষেবা। ২০২০-র ২২ মার্চ থেকে বন্ধ রয়েছে এই পরিষেবা।

গত বছর ডিসেম্বরে দার্জিলিং ও ঘুমের মধ্যে জয় রাইড পরিষেবা চালু হলেও এনজেপি-দার্জিলিং পরিষেবা বন্ধই ছিল। মূলত পাগলাঝোরার কাছে ধসের জেরে বন্ধ ছিল পরিষেবা।

Ad

চলতি বছরেও ধসের জেরে ক্ষতিগ্রস্থ হয় টয়ট্রেন লাইন। রেলের সেফটি কমিশন থেকে সবুজ সংকেতও মিলেছে ।
সব সারিয়ে আজ থেকে পরিষেবা চালুর মুখে।

আজ অর্থাৎ ২৫ অগাস্ট থেকে চালু হচ্ছে এই পরিষেবা। প্রায় ১৭ মাস পর। এখন শিলিগুড়ি জংশনের কারশেডে চলছে তারই প্রস্তুতি। আপাতত এনজেপি থেকে একটি ট্রেন যাবে দার্জিলিংয়ে। আবার অন্য একটি ট্রেন নেমে আসবে।

দেশ-বিদেশের পর্যটকদের কাছে বরাবরই টয় ট্রেনের চাহিদা তুঙ্গে। কিন্তু গত বছরে কোভিডের জেরে বন্ধ হয়ে যায় পরিষেবা। ৯ মাস পর ডিসেম্বরে দার্জিলিং ও ঘুমের মধ্যে জয় রাইড চালু হয়। ফের চলতি বছরের কোভিডের দ্বিতীয় ঢেউয়ের জেরে বন্ধ হয়ে যায় জয় রাইড পরিষেবাও।

গত ১৬ অগাস্ট থেকে ফের চালু হয়েছে জয় রাইড! বাড়ছে ভিড়ও! এবারে চালু হচ্ছে এনজেপি ও দার্জিলিংয়ের মধ্যে পুরোদস্তুর পরিষেবা শুরু হওয়ায় টিকিটের চাহিদা আরও বাড়বে বলেই আশাবাদী রেলকর্তারা। ধস সারিয়ে লাইন সংস্কার করা হয়েছে। ট্রায়াল রানও করা হয়েছে।

রেল সূত্রে জানা গিয়েছে, পরিস্থিতি আরও স্বাভাবিক হলে বাড়ানো হবে ট্রেনের সংখ্যাও। আপাতত ডিজেল ইঞ্জিন চালু করা হচ্ছে। টয় ট্রেন চালুর খবরে খুশি পর্যটন ব্যবসায়ীরা। ট্যুর অপারেটার সম্রাট সান্যাল জানান, পাহাড়ে টয়ট্রেনের জনপ্রিয়তা বরাবরই শীর্ষে। পুজোর মরসুমের আগে পরিষেবা চালু হওয়ায় পর্যটন শিল্পেও প্রসার বাড়বে। ধীরে ধীরে পর্যটকেরাও শৈল শহরে ভিড় জমাচ্ছেন। আর এবার শিলিগুড়ি থেকে চড়াই উতরোই পথ ধরে পাহাড়ে ওঠার ষোলআনা মজা লুফে নেওয়ার অপেক্ষা! খুশির আবহ পর্যটন শিল্পে!

আরও পড়ুন