গুগল ম্যাপ দেখে ভুল বিয়েবাড়ি, অন্য পাত্রীকে বিয়েই করে ফেলছিলেন যুবক, এরপর যা হলো

ওয়েব ডেস্ক, ৮ জুনঃ বর ভুল করে অন্য কনেকে বিয়ে করতে চলে গিয়েছে, এমনটা কখনও শুনেছেন? এবার সত্যিই এমনটাই হয়েছে। ভুল পাত্রীর সঙ্গে বিয়ে প্রায় হয়েই যাচ্ছিল ওই বরের। শেষ পর্যন্ত অঘটন রোখা সম্ভব হয়েছে। আর এই গোটা কাণ্ডের জন্য দায়ী ‘গুগল ম্যাপে’র ভুল লোকেশন।

গুগল ম্যাপের দুর্বোধ্য নিশানা অনুসরণ করে এ যাবৎ অনেকেই হয়তো ভুলভাল গন্তব্যে পৌঁছে হয়রানির শিকার হয়েছেন। তবে ভুল লোকেশন পেয়ে এক বিয়েবাড়ির বর অন্যত্র পৌঁছে ভুল পাত্রীকে প্রায় বিয়ে করে ফেলছিলেন, এমনটা বোধহয় এর আগে ঘটে নি। জানা গিয়েছে, এমন অদ্ভুত কাণ্ড ঘটেছে ইন্দোনেশিয়ায়। দুই বাড়ির লোকজনদের মধ্যে কথাবার্তা শুরু হওয়ার খানিকক্ষণের মধ্যেই কোনও এক পক্ষের লোকেরা বুঝতে পারেন কিছু একটা ভুল হচ্ছে। তারপরই প্রকাশ্যে আসে আসল ঘটনা।

জানা গিয়েছে, ইন্দোনেশিয়ার ওই এক গ্রামে একই দিনে দু’টি বিয়ের অনুষ্ঠান ছিল। আর এর ফলেই তৈরি হয়েছিল বিভ্রান্তি। এদিকে মেকআপ আর্টিস্টের সঙ্গে বিয়ের কনে সাজতে এতই ব্যস্ত ছিলেন যে বর যে বদলে গিয়েছে সেটা নাকি তাঁর নজরেই আসেনি। ইনস্টাগ্রামে এই ঘটনার একটি ভিডিয়োও ভাইরাল হয়েছে। সেখানে দেখা গিয়েছে, একগাদা উপহার হাতে করে ভুল ভেনু থেকে বেরিয়ে আসছেন বরযাত্রীরা।

মধ্য জাভার পাকিস জেলার লোসারি আর জেংকোল হ্যামলেট কাছাকাছি অবস্থিত দুটো গ্রাম। দুই গ্রামেই ছিল অনুষ্ঠান। গুগল ম্যাপে লোসারি লোকেশন দিলেও বর সমেত বরযাত্রী গিয়ে পৌঁছয় জেংকোল হ্যামলেটে। সেখানকার কনে ছিলেন মারিয়া উলফা। সাজগোজ সেরে যখন বর আর বরের বাড়ির লোককে দেখেন তখনই মারিয়া বুঝতে পারেন কিছু একটা গন্ডগোল হয়েছে। কারণ একটাও যে চেনা-পরিচিত মুখ নেই।

মারিয়া জানিয়েছেন, তাঁর বর আর বরযাত্রীর লোকেরা রাস্তায় ওয়াশরুমে গিয়েছিলেন। তাই তাঁদের আসতে দেরি হচ্ছিল। এই সময়ের মধ্যেই আর এক যুবক তাঁর পরিবার নিয়ে হাজির হয়। প্রথমে ব্যাপারটা সত্যিই কেউ খেয়াল করেননি। পরে একটু নজর করতেই পরিষ্কার হয় গোটা বিষয়টা।