রাজ্যসভায় বক্তৃতা করার সময় কেঁদে ফেললেন প্রধানমন্ত্রী

ইউবিজি নিউজ ডেস্ক : চোখে জল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর। রাজ্যসভায় গুলাম নবি আজাদ-সহ বিদায়ী সাংসদদের জন্য বক্তৃতা করার সময় কেঁদে ফেললেন তিনি। কথা বলতে বলতে গলা ভারী হয়ে এল। বারবার থেমে যেতে হল তাঁকে। তবু আবেগ নিয়ন্ত্রণ করতে পারলেন না। মোদীকে চোখ মুছতে দেখা গেল বারবার। ‘প্রকৃত বন্ধু’ গুলাম নবি আজাদকে বারবার তিনি বললেন, ‘‘আপনার অবসর নেওয়া চলবে না।’’ যেদিন প্রধানমন্ত্রী হিসাবে সংসদে প্রথমবার এসেছিলেন মোদী, সেদিনও তাঁর চোখে জল দেখা গিয়েছিল। মঙ্গলবার ফের সংসদে দেখা গেল একই দৃশ্য।

রাজ্যসভার বিদায়ী সদস্যদের জন্য মঙ্গলবার অধিবেশনের শুরুতেই বক্তব্য পেশ করেন উপ-রাষ্ট্রপতি এম বেঙ্কাইয়া নাইডু। তারপর বক্তৃতা শুরু করেন মোদী। গুলাম নবি ‌আজাদের রাজ্যসভার মেয়াদ শেষ হওয়া নিয়ে প্রধানমন্ত্রী প্রথমেই বলেন, ‘‘আমি চিন্তিত, গুলাম নবিজির পরে যিনি এই আসনে বসতে চলেছেন, তাঁকে অনেক চ্যালেঞ্জের মুখে পড়তে হবে। কারণ, নবিজি শুধু মাত্র দলীয় আদর্শের প্রতিনিধি ছিলেন না, তিনি ছিলেন দেশের একজন প্রতিনিধি। তিনি রাজ্যসভা ও দেশকে সর্বাগ্রে প্রাধান্য দিতেন। একই কথা বলতে হয় শরদ পওয়ারকে নিয়েও।’’

তারপরেই হঠাৎ আবেগে ভেঙে পড়েন তিনি। বলেন, ‘‘সাংসদরা পরিবারের সদস্যদের মতো। তাঁদের এই ভবন ছেড়ে চলে যাওয়া মনে কষ্ট দেয়। তবে গুলাম নবি আজাদের মতো মানুষেরা সবসময় দেশের স্বার্থে তাঁদের অভিজ্ঞতাথেকে নানা পরামর্শ দেবেন, এই আশা রাখি।’’

কথা বলতে বলতেই মাঝে মধ্যে থেমে যাচ্ছিলেন তিনি। বাক্যের মধ্যেই আটকে যাচ্ছিলেন। দু-একবার সম্মান জানানোর ভঙ্গিতে কপালে হাত তুলে স্যালুটও করতে দেখা গেল তাঁকে। গুলাম নবির মতো মানুষের এতদিন ধরে সংসদে তথা দেশের জন্য কাজ করে যাওয়াকে সম্মান জানালেন তিনি।

বক্তৃতা শেষ করার আগে, স্যালুটের সেই কারণও বললেন প্রধানমন্ত্রী। শেষে বললেন, ‘‘দেশের স্বার্থে কাজ করার জন্য আমি সাংসদদের ধন্যবাদ জানাই। ধন্যবাদ জানাই গুলাম নবি আজাদকে। আপনার পরামর্শ সংসদে সবসময় সাগ্রহে গ্রহণ করা হবে।’’