বদলে যাচ্ছে এই ব্যাংকের IFSC কোড, কীভাবে পাবেন নতুন IFSC কোড? জেনে নিন

ইউবিজি নিউজ :আপনার যদি বিজয় ব্যাংক এবং ডেনা ব্যাংকে অ্যাকাউন্ট থাকে তবে এই খবরটি আপনার জন্য বিশেষ। হ্যাঁ… এই দুটি ব্যাংকের আইএফএসসি কোডগুলি মার্চ 1 থেকে পরিবর্তন হতে চলেছে। যদি মনে থাকে, এই ব্যাংকগুলি ব্যাংক অফ বরোদার সাথে একীভূত করা হয়েছে। যদি আপনার অ্যাকাউন্ট এই ব্যাংকগুলিতে থাকে তবে আপনার ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট নম্বর, পাসবুক এবং চেকও পরিবর্তন হবে।

অ্যাকাউন্টধারীরা ক্ষতিগ্রস্থ হবেন

আইএফএসসি কোডের পরিবর্তনগুলি অ্যাকাউন্টধারীদের হাতে পড়বে। তবে আপনাকে অবিলম্বে চিন্তা করার দরকার নেই। এই মুহুর্তে, এই শাখাগুলির আইএফএসসি কোডগুলি ফেব্রুয়ারির শেষ দিন অর্থাৎ 28 ফেব্রুয়ারী পর্যন্ত ব্যবহার করা যেতে পারে। ব্যাংকও এ বিষয়ে সব গ্রাহককে অবহিত করেছে। ব্যাংক (এসএমএস) গ্রাহকদের এসএমএস প্রেরণের কাজ করেছে। আসুন আমরা আপনাকে এখানে বলি যে বিজয়া এবং ডেনা ব্যাংক 2019 সালে ব্যাংক অফ বরোদার সাথে একীভূত হয়েছিল।

২০১৯ সালের ১ এপ্রিল থেকে দেনা ব্যাংক এবং বিজয়া ব্যাংককে মিশিয়ে দেওয়া হয়েছে ব্যাংক অফ বরোদার (BoB) সঙ্গে। গোটা সংযুক্তিকরণ প্রক্রিয়াও ইতিমধ্যে শেষ হয়েছে। যদিও তিন ব্যাংকের IFSC (ইন্ডিয়ান ফিনান্সিয়াল সিস্টেম কোড) কোড (New IFSC Code) অপরিবর্তিত থাকলেও এখনও পর্যন্ত কোনও সমস্যা তৈরি হয়নি। কিন্তু ২০২১ সালের ১ মার্চ থেকে বড় পরিবর্তন আসতে চলেছে।

সম্প্রতি ব্যাংক অফ বরোদা-র অফিসিয়াল অ্যাকাউন্ট থেকে একটি ট্যুইট করা হয়েছে। সেখানে জানানো হয়েছে, বিজয়া ব্যাংক এবং দেনা ব্যাংকের IFSC কোড বাতিল হতে চলেছে। আগামী ১ মার্চ থেকে সেগুলির আর কোনও বৈধতা থাকবে না। BoB-তে মিশে যাওয়ার এই দুই ব্যাংকের গ্রাহকদের নতুন IFSC কোড ব্যবহার করতে হবে।

কীভাবে নতুন IFSC কোড পাওয়া যাবে, তাও জানানো হয়েছে, ব্যাংক অফ বরোদার ওই ট্যুইটে। সেটি অনুসারে ব্রাঞ্চে যাওয়ার পরিবর্তে SMS-এর মাধ্যমে বা অন্যান্য পদ্ধতিতে গ্রাহকরা এই তথ্য জানতে পারবেন।

ব্যাংকের কাজকর্মে IFSC কোড খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এক ব্যাংক থেকে অন্য ব্যাংকের অ্যাকাউন্টে টাকা ট্রান্সফার করার ক্ষেত্রে IFSC কোড লাগে। ন্যাশনাল ইলেকট্রনিক ফান্ড ট্রান্সফার (NEFT) এবং রিয়েল টাইম গ্রস সেটলমেন্ট (RTGS) প্রক্রিয়ায় এক অ্যাকাউন্ট থেকে অন্য অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠানোর ক্ষেত্রে IFSC কোড উল্লেখ বাধ্যতামূলক। তা না হলে টাকা ট্রান্সফার করা যাবে না। কেননা, IFSC-র মাধ্যমে কোনও ব্যাংকের কোন শাখায় সুবিধাভোগীর অ্যাকাউন্ট রয়েছে তা জানা যায়।

এরই পাশাপাশি গ্রাহকদের MICR (ম্যাগনেটিক ইঙ্ক ক্যারেক্টার রেকগনিশন) কোডও বদলে গিয়েছে। ব্যাংক চেকে ব্যবহার করা হয় এই কোড। চেকের তলায় এই সংখ্যা লেখা থাকে, যা ব্যাংক এবং তার শাখার পরিচয় বহন করে। আগামী ৩১ মার্চের মধ্যে নতুন MICR-সহ পার্সোনালাইড চেকবুকের আবেদন করার জন্য পূর্বতন বিজয়া ব্যাংক এবং দেনা ব্যাংকের গ্রাহকদের কাছে আবেদন করেছে ব্যাংক অফ বরোদা কর্তৃপক্ষ। মোবাইল ব্যাংকিং, ইন্টারনেট ব্যাংকিং, কাস্টমার কেয়ার নম্বরে ফোন করে, ATM বা ব্যাংকের ব্রাঞ্চে গিয়ে নতুন পার্সোনালাইড চেকবুকের আবেদন করা যাবে। তবে পরবর্তী নোটিশ না দেওয়া পর্যন্ত পুরনো চেক ব্যবহার করা যাবে বলে জানিয়েছে তারা।